দেশের পরিস্থিতি অশান্ত করতে বিএনপি-জামায়াত গুপ্তহত্যা চালাচ্ছে : নাসিম

0
145

195301nasima_kalerkantho__picআওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য, কেন্দ্রীয় ১৪ দলের মুখপাত্র এবং স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, দেশের পরিস্থিতি অশান্ত করতে বিএনপি-জামায়াত গুপ্তহত্যা চালাচ্ছে।

আজ বুধবার বিকেলে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ধানমন্ডিস্থ রাজনৈতিক কার্যালয়ে কেন্দ্রীয় ১৪ দলের সাথে বাংলাদেশের বৌদ্ধ ও খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বী সম্প্রদায়ের নেতৃবৃন্দের এক মতবিনিময় সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। মোহাম্মদ নাসিম বলেন, সবক্ষেত্রে হেরে গিয়ে বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া বিশ্বের সামনে প্রমাণ করার চেষ্টা করছেন যে বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক দেশ। তারা মানুষ নয়। তারা মানুষ হলে এভাবে মানুষ হত্যা করতে পারতো না।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে যাচ্ছে। বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশ নিয়ে যখন ইতিবাচক কথা চলছে, তখন পরিস্থিতি অশান্ত করে তুলতেই একটি নির্দিষ্ট গোষ্ঠী বেছে বেছে নিরীহ মানুষকে হত্যা করছে। একাত্তরের ঘাতকদের বিচার যারা চায়নি তারাই এসব করছে। আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, দু’টি কারণে গুপ্তহত্যা হচ্ছে।

রাজাকারদের বিচার কাজ বন্ধ করতে এবং পাকিস্তানের প্রেতাত্মা খালেদা জিয়ার ক্ষমতার লোভের কারণে। খালেদা জিয়া ২০১২ সালে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার বন্ধ করতে আন্দোলন করেছেন। ২০১৩ সালে মানুষ পুড়িয়ে ক্ষমতায় আসতে চেয়েছিলেন। কিন্তু শেখ হাসিনাকে ক্ষমতাচ্যুত করা এতো সহজ নয়। কারণ জনগণ শেখ হাসিনার সঙ্গে রয়েছে। আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেন, বিএনপি-জামায়াত তাদের সর্বশেষ চেষ্টা হিসেবে আত্মঘাতী হামলা শুরু করেছে।

নতুন লড়াই শুরু হয়েছে। ১৯৭১ সালের মতো শত্রুকে চিহ্নিত করে লড়াই করে জিততে হবে। জাতীয় জাগরণের মধ্য দিয়ে এসব কিছুর মোকাবেলা করতে হবে। সাম্যবাদী দলের সাধালন সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া বলেন, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক একটি মহল শেখ হাসিনার সরকারকে উৎখাত করার জন্য নানা ষড়ডন্ত্র করছে। আমরা কোনো দেশে উদ্বাস্তু হিসেবে যেতে চাই না। এ দেশের নাগরিক হিসেবে বাংলাদেশকে অসাম্প্রদায়িক হিসেবে এগিয়ে নিয়ে যাবো।

বৈঠকে আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম ও খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, আওয়ামী লীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাস, কেন্দ্রীয় কমিটির সদষ্য আমিরুল ইসলাম আমিন ও এস এম কামাল হোসেন, ঢাকা মহানগর দক্ষিনের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, খ্রিষ্টান সম্প্রদায়ের হিওবাট গোমেজ, বৌদ্ধিস ফেডারেশনের সভাপতি অধ্যাপক অসীম রঞ্জন বড়ুয়া, সাধারণ সম্পাদক অশোক বড়ুয়া, খ্রিষ্টান সোসাইটির সাংগঠনিক সম্পাদক প্রলয় বাপ্পি, বাসদের আহবায়ক রেজাউর রশিদ খান, জাতীয় পার্টি (জেপির) প্রেসিডিয়াম মেম্বার সালাহ উদ্দিন, গণতান্ত্রিক পার্টির সাধারণ সম্পাদক শাহাদাত হোসেন, কমিউনিষ্ট কেন্দ্রের আহ্বায়ক ওয়াজেদুল ইসলাম প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

এদিকে পরে স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম অফিসার্স ক্লাবে স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ (স্বাচিপ) আয়োজিত আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিলে যোগদান করেন। স্বাচিপের সভাপতি সভাপতি অধ্যাপক ডা. ইকবাল আর্সলানের সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ডা. আব্দুল আজিজ বক্তব্য রাখেন।