দীর্ঘক্ষণ কাজ করলে স্ট্রোকের ঝুঁকি

0
234

949641961একটানা দীর্ঘক্ষণ কাজ করবেন না। বিশেষজ্ঞগণ গবেষণায় দেখেছেন, যারা একটানা দীর্ঘক্ষণ কাজ করেন তাদের স্ট্রোক বা মস্তিষ্ক রক্তক্ষরণের ঝুঁকি স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি।

ব্রিটিশ গবেষকগণ যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপ ও অষ্ট্রেলিয়ার ৬ লাখের বেশি নারী পুরুষের তথ্য পর্যালোচনা করে এ তথ্য দেন। গবেষণার উদ্দেশ্য ছিল দীর্ঘক্ষণ পরিশ্রম করলে বা কাজের মধ্যে ডুবে থাকলে হৃদরোগের ওপর কোন প্রভাব পড়ে কিনা তা দেখা। গবেষণায় প্রতীয়মান হয়েছে, সপ্তাহে ৫৫ ঘণ্টা অথবা এরচেয়ে বেশি কাজ করলে স্ট্রোকের ঝুঁকি স্বাভাবিকের চেয়ে ৩৩ ভাগ বেশি। এখানে সপ্তাহে সর্বোচ্চ ৩০ থেকে ৪০ ঘণ্টা কাজ করাকে স্বাভাবিক ধরা হয়েছে। আর এই গবেষণা রিপোর্টটি প্রকাশ করেছে বিখ্যাত মেডিকেল জার্নাল ল্যানসেট।

এই গবেষণাটি পরিচালনা করেছেন, ইউনিভার্সিটি কলেজ লন্ডনের ইপিডেমিওলজির অধ্যাপক ড. মিকা কিভিমাকি ও তার দল। এ ছাড়া গবেষকগণ বলছেন, শুধু স্ট্রোকের ঝুঁকি বাড়ে তাই নয়, যারা দীর্ঘ সময় কাজের মধ্যে ডুবে থাকেন তাদের হার্ট এ্যাটাক এবং হূদরোগে মৃত্যুর ঝুঁকি স্বাভাবিকের চেয়ে ১০ ভাগ বেশি।

বিশেষজ্ঞগণ বলছেন, যারা অধিক সময় কাজ করেন তাদের অবশ্যই কোলেস্টেরল, ডায়াবেটিস, শরীরের বাড়তি ওজন, ফুডহ্যাবিটসহ নানা ক্ষেত্রে খেয়াল রাখতে হবে। ধূমপান করা যাবেনা এবং নিয়মিত ব্যায়াম করতে হবে। লং আওয়ার বা বেশিক্ষণ কাজের মধ্যে থাকলে কেন স্ট্রোক ও হার্ট এ্যাটাকের ঝুঁকি বাড়ে তার একটা ব্যাখ্যাও দিয়েছেন ড. কিভিমাকি।

তিনি মনে করেন, অধিক কাজ থেকে স্ট্রেচ বেশি হয়, অধিক সময় বসে থাকা পড়ে এবং খাদ্যাভ্যাসও এক্সারসাইজের ক্ষেত্রে নানা অনিয়ম ঘটে। তবে ড. কিভিমাকি সবচেয়ে যে উদ্বেগজনক তথ্যটি দিয়েছেন তা হচ্ছে, তার গবেষণাকালীন গবেষণায় অন্তভূক্তি পুরুষ ও নারীদের মধ্যে ১ হাজার ৭২২ জন স্ট্রোকে আক্রান্ত হন।

ডা. মোড়ল নজরুলইসলাম
চুলপড়া, চর্মরোগ ও এলার্জি এবং যৌন সমস্যা বিশেষজ্ঞ
লেজার এন্ড কসমেটিক সার্জন
বাংলাদেশ লেজার স্কিন সেন্টার

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here