দাউদ ইব্রাহিমের সঙ্গে ১৯ মিনিটের ফোনালাপ!

0
18

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: ভারতীয় উপমহাদেশের অন্ধকার জগতের সর্বাধিক পরিচিত নাম দাউদ ইব্রাহিম। দাউদ ইব্রাহিম অসুস্থ অবস্থায় পাকিস্তানে রয়েছে বলে দীর্ঘদিন ধরে দাবি করছে ভারত।

তবে সম্প্রতি আবার আলোচনায় এসেছে সেই দাউদকে নিয়ে ঘুম হারাম হয়েছে ভারতীয় গোয়েন্দাদের।

গুজরাটে একটি জাহাজ থেকে দাউদের মাদকের চালান ধরা পড়ার পর তাকে নিয়ে আবার তৎপর হয়েছে গোয়েন্দারা।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ‘সিএনএন নিউজ ১৮’ টিভি চ্যানেল থেকে সাক্ষাৎকারের জন্য দাউদ ইব্রাহিমের ফোনে ফোন করা হয়। এসময় অপরপ্রান্ত থেকে কথাও বলেন দাউদ ইব্রাহিম। দাউদের ফোন থেকে কথা হয় ১৯ মিনিট।

সেই সাক্ষাৎকারের দাউদের কণ্ঠস্বর নিয়ে মিলিয়ে দেখেছে ভারতীয় গোয়েন্দারা। গোয়েন্দারা নিশ্চিত হয়েছে, সাক্ষাৎকারটি দাউদ ইব্রাহিমেরই। আর ফোনটি রিসিভ করা হয়েছিল পাকিস্তানের করাচি থেকে।

ওই টিভি চ্যানেলের পক্ষ থেকেও দাবি করা হয়, ফোনের ওপারের ব্যক্তিটির কণ্ঠ দাউদেরই।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় করাচিতে করা সিএনএন নিউজ ১৮ এর ওই ফোনটি তুলেছিলেন স্বয়ং দাউদ ইব্রাহিমই। কথপোকথনের শুরুতে দাউদ নিজে ওই সাংবাদিককে তার পরিচয় জিজ্ঞাসা করেন।

নিউজ ১৮ এর দাবি, ওই কণ্ঠস্বর গোয়েন্দাদের গত ৩১ মে রেকর্ড করা দাউদের কণ্ঠস্বরের সঙ্গে মিলে ‌যায়। করাচির ওই নম্বরে ফোন করার পর যে ব্যক্তি ফোন তোলেন তাকে জিজ্ঞাসা করা হয়, তিনিই কি ডন দাউদ ইব্রাহিম? এরপরই ওই ব্যক্তি ফোনটি দিয়ে দেন অন্য এক জনকে। সেই ব্যক্তি নিজেকে দাউদ চোটানি বলে পরিচয় দেন। এই দাউদ চোটানি বহুদিন ধরেই দাউদ ইব্রাহিম ঘনিষ্ঠ।

সাংবাদিকের প্রশ্ন শুনে বিরক্ত হয়ে ‌যান দাউদ চোটানি। তিনি সাংবাদিককে বলতে থাকেন, সময় নষ্ট করবেন না। কার সঙ্গে আপনি কথা বলছেন জানেন? আপনার কোনও ধারণা রয়েছে?

ওই কথাবার্তার পর টেপটি পরীক্ষা করে দেখছেন গোয়েন্দারা। ভারত বারবারই বলে আসছে মাফিয়া ডন দাউদ ইব্রাহিম পাকিস্তানেই রয়েছে। কিন্তু পাকিস্তান সরকার তা কখনওই স্বীকার করেনি।

সম্প্রতি ভারতের তৎপরতায় আরব আমিরশাহি সরকার দাউদের বিপুল সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করেছে। পাশাপাশি কিছুদিন আগেই শোনা গিয়েছিল দাউদের শারীরিক অবস্থা অত্যন্ত খারাপ। এই ফোনালাপের পর এবার সেই জল্পনার অবসান হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here