ত্রুটি-বিচ্যুতি সংশোধনে সময় দেবে ইসি

0
42

ঢাকা: নির্বাচন কমিশনে (ইসি) নিবন্ধনের জন্য আবেদন করা ৭৬টি রাজনৈতিক দলের কাগজপত্রে কমবেশি ত্রুটি পেয়েছে এ সংক্রান্ত কমিটি। আবেদনের বেশির ভাগ অসম্পূর্ণ। কোনোটিতে নেই পর্যাপ্ত তথ্যউপাত্ত। আবার কোনো দল আবেদনপত্রের সঙ্গে নির্দিষ্ট ফি জমা দেয়নি।

কোনো কোনো দলের অন্যের গঠনতন্ত্রের নাম পরিবর্তন করে নিজেদের হিসেবে জমা দিয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকালে নতুন দলের আবেদন যাচাই-বাছাই সংক্রান্ত কমিটির এক বৈঠকে এসব ত্রুটি বেরিয়ে আসে। ওই বৈঠকে রাজনৈতিক দল নিবন্ধন বিধিমালা অনুযায়ী দলগুলোকে ত্রুটি-বিচ্যুতি সংশোধনে ১৫ দিনের জন্য সময় দেয়ার সুপারিশ করতে যাচ্ছে ওই কমিটি। ইসি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

এ বিষয়ে কমিটির একাধিক সদস্য নাম গোপন রাখার শর্তে বলেন, রাজনৈতিক দল নিবন্ধন বিধিমালার ধারা ৭ অনুযায়ী, প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দেয়ার জন্য সর্বোচ্চ ১৫ দিনের সময় দেয়ার বিধান রয়েছে। তারা আরও বলেন, প্রাথমিক যাচাইবাছাইয়ে যেসব দল নিবন্ধন উপযোগী হিসেবে চিহ্নিত করা হবে সেগুলোর মাঠপর্যায়ের কার্যালয় ও কমিটি রয়েছে কিনা তা খতিয়ে দেখবে কমিশন।

নিবন্ধন শর্ত পূরণকারীর দলগুলোর খসড়া তালিকা প্রকাশ করা হবে। ওই সব দলের ওপর দাবি-আপত্তি শেষে নিবন্ধন দেয়া হবে। তারা আরও বলেন, প্রাথমিক বাছাইয়ে দুটি দলের মোটামুটি কাগজপত্র পাওয়া গেছে।

জানা গেছে, গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ (আরপিও) অনুযায়ী নতুন দলের গঠনতন্ত্রে বেশ কিছু তথ্যের ঘাটতি রয়েছে। নিবন্ধিত একটি দলের প্রতীক চেয়ে নতুন দুটি দল আবেদন করেছে। এ ছাড়াও মুসলিমদের পবিত্র ধর্মগ্রন্থ আল-কোরআন, বিএনপির দলীয় প্রতীক ধানের শীষের মতো দেখতে গমের শীষ ও গমের ছড়া, আওয়ামী লীগের দলীয় প্রতীক নৌকার মতো দেখতে পানির জাহাজ প্রতীক চেয়েও আবেদন করেছে কয়েকটি দল।

প্রসঙ্গত, নতুন দলের নিবন্ধনের জন্য আবেদন চেয়ে ৩০ অক্টোবর গণবিজ্ঞপ্তি জারি করে কমিশন। এতে আবেদনের শেষ দিন ছিল ৩১ ডিসেম্বর। একাদশ জাতীয় নির্বাচন সামনে রেখে এই আবেদন আহ্বান করে নির্বাচন কমিশন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here