তৃতীয় শক্তি মাঠে নেমেছে, শিশুদের ঘরে ফিরিয়ে নিন: প্রধানমন্ত্রী

0
19

ঢাকা: আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, যথেষ্ট হয়েছে, তোমাদের সব দাবি পর্যায়ক্রমে বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। এবার তোমরা ক্লাসে ফিরে যাও।

আর শিক্ষার্থীদের বাবা-মা, অভিভাবক ও শিক্ষকদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ‘তৃতীয় পক্ষ মাঠে নেমে গেছে, ঢাকার বাইরে থেকে লোক নিয়ে এসেছে এখানে, তাদের কাজ সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড করা, যখনই আমি এটা জেনেছি, আমি আতঙ্কিত বোধ করছি। শিক্ষার্থীদের এখন যদি কিছু হয়, তবে এর দায়িত্ব কে নেবে?’

রবিবার (৫ আগস্ট) প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন জাতীয় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অবকাঠামো উন্নয়ন শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় ১০টি জেলার ৩০০টি ইউনিয়নের অপটিক্যাল ফাইবার কানেটিভিটির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, স্বজন হারানোর ব্যথা আমি বুঝি। যে তৃতীয় শক্তি মাঠে নেমেছে এরা কিন্তু মানুষ না। এরা কিন্তু আগুনে পুড়িয়ে মানুষ মারে। আর কোনো মায়ের কোল খালি হোক, এটা আমি চাই না।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, এই তৃতীয় শক্তির এমন কোনো অপকর্ম নেই যা তারা পারে না। আজ গাউছিয়া ও নিউ মার্কেটে ইউনিফর্ম এবং নীলক্ষেতে আইডি কার্ড বানানোর হিড়িক পড়ে গেছে। এগুলো কারা বানাচ্ছে?

শনিবার জিগাতলার ঘটনা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘মাথায় হেলমেট পরে, লাঠি নিয়ে আমাদের কার্যালয়ে হামলা করা হয়েছে।

এরা কারা? আমার ছেলেরা ধানমন্ডির কার্যালয়ে বসে বারবার বলেছে, তারা রক্তাক্ত হচ্ছে। আমি তাদের বলেছি, তোমরা ধৈর্য ধর। আপনারা ইতোমধ্যে জেনে গেছেন, একটি দলের একজন সিনিয়র নেতা কিভাবে লোকজন ঢাকায় এনে আন্দোলনে নামানোর জন্য হুকুম দিয়েছেন। ’

শিক্ষার্থীদের দাবি বাস্তবায়নের আশ্বাস দিয়ে তিনি বলেন, ‘দাবি-দাওয়া যা ছিল, সবই একে একে বাস্তবায়ন করে যাচ্ছি। যেখানেই স্কুল, সেখানেই ট্রাফিক থাকবে, রাস্তা পারাপার করিয়ে দেবে। আন্ডারপাস করা হবে। ওভারব্রিজ হবে, তবে তা যেন ব্যবহার করে। ’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আজ থেকে ট্রাফিক সপ্তাহ শুরু হয়েছে। স্কুল থেকেই যাতে শিক্ষার্থীদের মধ্যে ট্রাফিক আইন সম্পর্কে সচেতনতা তৈরি করা যায়, সে বিষয়ে আমরা পদক্ষেপ নেব।

বিএনপি-জামায়াতকে ইঙ্গিত করে শেখ হাসিনা বলেন, যারা আগুন সন্ত্রাস করেছে, তারা কোমলমতি শিক্ষার্থীদের দিয়ে যেকোনো কিছুই করাতে পারে। সবাই তাদের ব্যাপারে সতর্ক থাকবেন। কাউকে অস্থিতিশীল পরিস্থিত তৈরির সুযোগ দেয়া যাবে না।

শেখ হাসিনা বলেন, আমরা ২১ বছরের জঞ্জাল সরিয়ে দেশ পরিচালনা করছি। তোমরা যখন দেশ পরিচালনা করবে তখন এ জঞ্জাল তোমাদের সরাতে হবে না। তোমরা খুব সুন্দরভাবে দেশ পরিচালনা করতে পারবে।

অনুষ্ঠানে ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here