তুরস্কে অভ্যুত্থান ষড়যন্ত্রের দায় স্বীকার

0
125

147521_1আন্তর্জাতিক ডেস্ক: অভ্যুত্থান ষড়যন্ত্রের দায় স্বীকার করেছেন তুরস্কের বিমান বাহিনীর প্রাক্তন প্রধান জেনারেল একিন
ওজতুর্ক। দেশটির রাষ্ট্রীয় বার্তাসংস্থা আনাদোলু সোমবার এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

আনাদোলুতে ওজতুর্কের স্বীকারোক্তি উদ্ধৃত করে বলা হয়েছে, ‘অভ্যুত্থান ঘটানোর পরিকল্পনা’ করেন তিনি। গ্রেপ্তারের পর জিজ্ঞাবাদের সময় তিনি অভ্যুত্থান ষড়যন্ত্রের কথা স্বীকার করেন।

আনাদোলুতে ওজতুর্কের যে ছবি প্রকাশ করা হয়েছে, তাতে দেখা যাচ্ছে, তার মাথা ও শরীরের উপরের অংশে কিছু ক্ষত
চিহ্ন রয়েছে।

এর আগে জেনারেল ওজতুর্ক অভ্যুত্থান চেষ্টার সঙ্গে নিজের সম্পৃক্ততার বিষয়টি অস্বীকার করেন এবং দাবি করেন,
অভ্যুত্থান চেষ্টা প্রতিরোধে কাজ করেন তিনি।

শুক্রবার তুরস্কে অভ্যুত্থান চেষ্টা করে সামরিক বাহিনীর দলছুট একটি অংশ। কিন্তু তা ব্যর্থ হয়। তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ
তাইয়েপ এরদোগানের তাৎক্ষণিক বুদ্ধিমত্তায় রাস্তায় নেমে জনগণই মূলত অভ্যুত্থান চেষ্টা রুখে দেয়। তবে অভ্যুত্থান
চেষ্টা চলাকালে মোট ২৬৫ জন নিহত হয়। আহত হয় প্রায় দেড় হাজার মানুষ।

শনিবার অভ্যুত্থান চেষ্টা পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে নেওয়ার পর দেশটিতে ব্যাপক ধরপাকড় শুরু হয়। বিচার বিভাগ ও পুলিশ
বিভাগের কয়েক হাজার সদস্যকে বরখাস্ত করা হয়েছে। গ্রেপ্তার করা হয়েছে কমপক্ষে ৯ হাজার কর্মকর্তাকে।

তুরস্ক সরকার এ অভ্যুত্থান চেষ্টার জন্য যুক্তরাষ্ট্রে স্বেচ্ছায় নির্বাসিত ধর্মীয় নেতা ফেতুল্লাহ গুলেনকে দায়ী করে। গুলেন এ
অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করে এরদোয়ানের বিরুদ্ধে ‘অভ্যুত্থান নাটক সাজানোর’ পাল্টা অভিযোগ তোলেন।

অভিযোগ ও পাল্টা অভিযোগের মধ্যে বিমান বাহিনীর প্রাক্তন প্রধান জেনারেল একিন ওজতুর্ক অভ্যুত্থান ঘটানোর
ষড়যন্ত্রের কথা স্বীকার করলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here