তারেক রহমানের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক মামলার রায়ের প্রতিবাদে নিউইয়র্ক স্টেট ও সিটি বিএনপি’র বিক্ষোভ

0
126

07222016_02_US_BNPনিউইয়র্ক: ২১ জুলাই, ২০১৬ ইং বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৮:৩০ টায় জ্যাকসন হাইট্সের ড্রাইভারসিটি প্লাজায় তারেক রহমানের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক মিথ্যা মামলার রায়ের প্রতিবাদে নিউইয়র্ক স্টেট ও নিউইয়র্ক সিটি বিএনপি’র উদ্যোগে বিশাল বিক্ষোভ সমাবেশ এর আয়োজন করা হয়।কেন্দ্রীয় কমিটির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান আগামী দিনের দেশনায়ক তারেক রহমানের বিরেুদ্ধে মিথ্যা মামলার রায়ের প্রতিবাদে বিশাল বিক্ষোভ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন নিউইয়র্ক স্টেট বিএনপি’র সভাপতি মাওলানা অলিউল্যাহ্ মোহাম্মদ আতিকুর রহমান। সভা পরিচালনা করেন সাবেক ছাত্রনেতা ও নিউইয়র্ক সিটি বিএনপি’র সংগ্রামী সভাপতি হাবিবুর রহমান সেলিম রেজা।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি’র সাবেক সাধারণ সম্পাদক জিল্লুর রহমান জিল্লু। বিশেষ অতিথিদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি’র সাবেক কোষাধক্ষ্য ও ফেনী জেলা বিএনপি’র উপদেষ্টা জসিম উদ্দিন ভূঁইয়া, বিশেষ অথিথিদের মধ্যে আরো বক্তব্য রাখেন- যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি’র সাবেক যুগ্ম সম্পাদক ও তারেক পরিষদ চেয়ারম্যান আক্তার হোসেন বাদল, সাবেক ছাত্রনেতা ও নিউইয়র্ক স্টেট বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক সাইদুর রহমান সাইদ, নিউইয়র্ক সিটি বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক মোঃ আশরাফ হোসেন, যুক্তরাষ্ট্র যুবদলের সভাপতি জাকির এইচ চৌধুরী, যুক্তরাষ্ট্র শ্রমিক দলের সভাপতি- শফি আলম লাল, তারেক রহমান আন্তর্জাতিক পরিষদের সভাপতি জাহাঙ্গীর এম. আলম ও সাধারণ সম্পাদক রুহুল আমিন নাসির, মহিলা নেত্রী নিরা রাব্বানী, তারেক পরিষদের মহাসচিব- ভিপি জসিম উদ্দিন, সিটি বিএনপি’র সহ-সভাপতি আলমগীর হোসেন মৃধা, নিউইয়র্ক স্টেট বিএনপি’র সহ-সভাপতি মোঃ আমিনুর রহমান খোকন, নিউইয়র্ক স্টেট বিএনপি’র সহ-সভাপতি মোঃ আরিফুর রহমান, নিউইয়র্ক সিটি বিএনপি’র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক- আরিফুল ইসলাম তুহিন, নিউইয়র্ক স্টেট যুবদল সাধারণ সম্পাদক রেজাউল আজাদ ভূঁইয়া, পেনসিলভেনিয়া বিএনপি’র সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও যুবনেতা সাইফুর খান হারুন, ছাত্রনেতা নুরে আলম ।

বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তরা বলেন- তারেক রহমানকে রাজনীতি থেকে দূরে রাখার জন্য এই ‘রং হেডেড’ শেখ হাসিনার অবৈধ আওয়ামী লীগ সরকার নি¤œ আদালতে বেকুসর খালাস পাওয়া মামলায় পূণরায় ষড়যন্ত্র করে শেখ হাসিনার নির্দেশে বর্তমান হাইকোর্টের বিচারপতি যিনি ছিলেন সাবেক ছাত্রলীগ নেতা এনায়েতুর রহিমের বেঞ্চে ৭ বছর কারাদন্ড ও ২০ কোটি টাকা জরিমানা করেছেন। এই সকল মিথ্যা ও বানোয়াট রায় বাংলাদেশের ১৬ কোটি জনগণ কোনদিন মেনে নেবে না। দেশের সকলস্তরের জনগণ এ রায়কে ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করেছেন। এই অবৈধ হাসিনা সরকারের দিন ফুরিয়ে গেলে দেশনায়ক তারেক রহমান অচিরে ফিরে আসবে বিজয়ী বীরের বেশে স্বগৌরবে তারই প্রিয় বাংলাদেশে। পরিশেষে বক্তরা অবিলম্বে নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধিনে নির্বাচন দাবি করেন।

উক্ত বিক্ষোভ সমাবেশে আরো উপস্থিত ছিলেন- বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধা হাজি নুরুল ইসলাম, মুক্তিযোদ্ধা ওয়াহেদ আলী মন্ডল, মোঃ মোস্তাক আহমেদ, ছাত্রনেতা জিবন শফিক, শহিদুল ইসলাম আকন, মোঃ মহসিন, আশিক মাহমুদ, নুরে আলম চৌধুরী, হুমায়ুন কবির, আনিসুর রহমান, হাফিজুর রহমান পিন্টু, সুলতান মির্জা, জিন্নাত রেহানা রিনা, রফিক উদ্দিন বাহার, এ্যাড. আব্দুর রউফ, এমদাদ রহমান তরফদার, তৌফিক মিয়া, ছাত্রদল নেতা দেওয়ান আদনান পাশা, মাকনুন পাশা, মোঃ মাসুম বিল্লাহ্, বাপ্পি শাহরিয়ার, হুজাউল ইসলাম, নাজমুল হুদা, আব্দুল কাইয়ুম, তৌফিক আহমেদ।বিক্ষোভ সমাবেশে সকলের সাথে সহযোগিতা ও একাত্ত্বতা প্রকাশ করেন ওয়াশিটংন থেকে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি’র সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শরাফত হোসেন বাবু।