ঢাকায় হাথুরুসিংহে

0
95

স্পোর্টস ডেস্ক: বাংলাদেশে এসেছেন টাইগারদের বিদায়ী কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে। শনিবার সকালে তিনি ঢাকায় এসে পৌঁছান।

বাংলাদেশের কোচ থাকাকালীন সর্বশেষ দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের রিপোর্ট জমা দেয়ার জন্য এবং আনুষ্ঠানিকভাবে বিদায় নেয়ার জন্য শনিবার ঢাকায় এসেছেন হাথুরুসিংহে।

টাইগারদের সাবেক এই কোচ এখন শ্রীলঙ্কার প্রধান কোচের দায়িত্ব পালন করবেন। শুক্রবারই নিজ দেশের জাতীয় ক্রিকেটের দায়িত্ব নেন হাথুরুসিংহে।

শুক্রবার শ্রীলংকা ক্রিকেট বোর্ড আনুষ্ঠানিকভাবে কোচ হিসেবে হাথুরুসিংহের নাম ঘোষণা করেছে। লংকান বোর্ডের ইতিহাসে সর্বোচ্চ বেতনে অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউসদের কোচ নির্বাচিত হয়েছেন তিনি।

২০১৪ সালের মে মাসে বাংলাদেশের প্রধান কোচ হিসেবে শেন জার্গেনসেনের স্থলাভিষিক্ত হয়েছিলেন তিনি।

বাংলাদেশ ক্রিকেটের সঙ্গে ৪৯ বছর বয়সী হাথুরুসিংহের চুক্তি ছিল ২০১৯ বিশ্বকাপ পর্যন্ত।

কিন্তু এর আগেই গত অক্টোবরে দক্ষিণ আফ্রিকা সফর চলাকালীন তিনি বিসিবি সভাপতি বরাবর তার পদত্যাগপত্র পাঠান।

সিরিজ শেষে দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে তিনি সরাসরি চলে যান অস্ট্রেলিয়ায় পরিবারের কাছে।

হাথুরুসিংহে শ্রীলংকা দলের কোচ হয়ে যাওয়ায় তাকে নিয়ে বোর্ডের কোনো আগ্রহ নেই। কিন্তু দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে কেন এভাবে ব্যর্থ হয়েছে বাংলাদেশ, কোচের কাছ থেকে সেই রিপোর্ট পাওয়ার অপেক্ষাতেই বিসিবি।

হাথুরুসিংহে না থাকলেও সাপোর্টিং কোচিং স্টাফে কোনো পরিবর্তন আসবে না বলেই মনে করছে বোর্ড।

এদিকে ফিল্ডিং কোচ রিচার্ড হ্যালসল, ফিজিও মারিও ভিল্লাভারায়নসহ জাতীয় দলের বাকি কোচিং স্টাফরাও শনিবার ঢাকায় আসছেন।

একইদিনে বিসিবিকে সাক্ষাৎকার দিতে ঢাকায় আসবেন বাংলাদেশের কোচ হতে আগ্রহী ওয়েস্ট ইন্ডিজের ফিল সিমন্স। আগামীকাল বিসিবির সভা অনুষ্ঠিত হবে। সেখানেই মাশরাফিদের পরবর্তী কোচ নির্ধারণ হয়ে যেতে পারে।

বুধবার ইংলিশ বংশোদ্ভূত দক্ষিণ আফ্রিকান কোচ রিচার্ড পাইবাস সাক্ষাৎকার দিয়ে গেছেন। এরমধ্যে আরও একজন কোচের সাক্ষাৎকার দিতে আসার কথা ছিল। কিন্তু তিনি আসেননি। শনিবার ফিল সিমন্সের পরিকল্পনা ও উপস্থাপনা দেখবে বিসিবি।

এর আগে পাইবাসের পরিকল্পনা মনে ধরেছে বোর্ডের। সিমন্সের পরিকল্পনা এবং বাংলাদেশকে নিয়ে তার আগ্রহ কেমন এসব দিকে নজর দেবে বিসিবি। তারপর চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে বিসিবি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here