‘ডিজিটাল বাংলাদেশ না দেখে মানুষ নিরাপদ বাংলাদেশ দেখতে চায়’

0
11

ঢাকা: কোটা আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের সঙ্গে প্রতারণা করা হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমদ। বৃহস্পতিবার নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় গ্রামের বাড়িতে তিনি এ কথা বলেন।

কোটা আন্দোলন প্রসঙ্গে বিএনপির এই জ্যেষ্ঠ নেতা বলেন, ‘কোটা আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের সঙ্গে প্রতারণা করা হয়েছে। ১১ এপ্রিল পার্লামেন্টে দাঁড়িয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন কোটা পদ্ধতি আর থাকবে না। কিন্তু ২৭ জুন পার্লামেন্টে দাঁড়িয়ে আবার প্রধানমন্ত্রী বললেন কোটা পদ্ধতি থাকবে। কোটা আন্দোলনকারীদের সঙ্গে যে প্রতারণা করা হয়েছে। তাতে দেশের সব বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের সঙ্গে প্রতারণা করা হয়েছে।’ তিনি অভিযোগ করেন, সরকার ছাত্র-ছাত্রীদের আন্দোলনে ভয় পেয়ে অত্যাচার, নির্যাতন চালিয়েছে।

মওদুদ আহমদ বলেন, বর্তমানে দেশে বাক স্বাধীনতা নেই। গণতন্ত্র নেই। ডিজিটাল বাংলাদেশ না দেখে দেশের মানুষ নিরাপদ বাংলাদেশ দেখতে চায়। শিক্ষার্থীদের আন্দোলনতো সে কথাই বলে। মানুষ নিরাপদ সড়ক দেখতে চায়, নিরাপদ বাংলাদেশ দেখতে চায়।

দলীয় নেতা-কর্মীদের সঙ্গে ওই মতবিনিময়ে মওদুদ আহমদ আরও বলেন, ‘বর্তমান সরকারের যে জবাবদিহিহীন, এটা যে একটা নির্বাচিত সরকার নয়, সেটা তারা আচার-আচরণে প্রমাণ করে চলেছে। বর্তমান সরকারের জনপ্রিয়তা নেই। এখানে তাদের যিনি প্রতিনিধিত্ব করেন তাঁরও জনপ্রিয়তা নেই—সেটাই তিনি প্রমাণ করেছেন।’

সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘সরকার ছাত্র-ছাত্রীদের ওপর দমননীতি চালিয়েছে। তাঁদের বিরুদ্ধে এখন পর্যন্ত ৫২টি মামলা হয়েছে। ৯৭ জনকে গ্রেপ্তার করেছে। ২২ জনকে রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে। এই সব দেখে মনে হয় সরকার রাষ্ট্র পরিচালনায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেছে। আগামী ৫০ বছরে বাংলাদেশের নতুন প্রজন্ম আওয়ামী লীগকে ভোট দেবে না।’

মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সভাপতি আবদুল হাই সেলিম, সাধারণ সম্পাদক নুরুল আলম সিকদার, পৌর বিএনপির সভাপতি কামাল উদ্দিন চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুর রহমান প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here