ডায়ানার দাম্পত্যজীবনের ভিডিও সম্প্রচার নিয়ে শোরগোল

0
81

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: প্রিন্সেস ডায়ানাকে নিয়ে একটি তথ্যচিত্র সম্প্রচার করবে ব্রিটেনের এক টেলিভিশন চ্যানেল। সম্প্রচারিত হবে আগামী রোববার। কিন্তু এতে ঘোর আপত্তি জানিয়েছে ডায়ানার পরিবার, বন্ধু এবং তার ঘনিষ্ঠ মহল। এ মাসের শেষেই ডায়ানার মৃত্যুবার্ষিকী। তার আগেই প্রিন্সেসের এই তথ্যচিত্র নিয়ে শোরগোল পড়ে গেছে।

চ্যানেল ফোর জানিয়েছে, ওই তথ্যচিত্রে তুলে ধরা হবে ডায়ানার যৌন জীবন এবং যুবরাজ চার্লসের সঙ্গে অসুখী দাম্পত্যজীবনের কথা। এমনই দাবি করেছে চ্যানেলটি। তথ্যচিত্রটির নাম দেয়া হয়েছে নিজের বয়ানে ডায়ানা।

কেন ডায়ানার ব্যক্তিগত জীবনকে প্রকাশ্যে আনা হচ্ছে এ নিয়ে ইতিমধ্যে সমালোচনার ঝড়ও উঠেছে ব্রিটেনে। বাকিংহাম প্যালেসের সাবেক জনসংযোগ কর্মকর্তা ডিকি আরবিটারের মতে, এ ধরনের সম্প্রচার সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি বা পরিবারের মর্যাদাহানি করবে। দ্য ওয়াশিংটন পোস্টকে তিনি জানান, সব বিষয় জানার তো আমাদের প্রয়োজন নেই! গোপনটা গোপন রাখাই ভালো।

১৯৯২-৯৩ সালে কেনসিংটন প্যালেসে ডায়ানার কণ্ঠ প্রশিক্ষক (ভয়েস কোচ) পিটার সেটেলেনের সঙ্গে কথোপকথনের সময়ে এই তথ্য রেকর্ড হয়েছিল। ২০০৪-এ ডায়ানার ওপর একটি তথ্যচিত্র তৈরি করা হয়েছিল। সেটা আমেরিকাতে সম্প্রচার হয়। কিন্তু সেখানে খণ্ড খণ্ডভাবে বিষয়টি দেখানো হয়েছিল। তবে ব্রিটিশ চ্যানেলটির দাবি, তাদের তৈরি যে তথ্যচিত্র, সেখানে এমন কিছু ফুটেজ রয়েছে যা আগে কখনও কেউ দেখায়নি। দ্য গার্ডিয়ানে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, ডায়ানার ভাই আর্ল স্পেনসার ব্রিটিশ চ্যানেলটিকে আবেদন জানিয়েছেন এই ছবি সম্প্রচার হলে ডায়ানার দুই ছেলে প্রিন্স উইলিয়াম এবং প্রিন্স হ্যারির মনে আঘাত লাগবে। ব্রিটিশ দৈনিক সান ইতিমধ্যে ওই টেপের যে অংশবিশেষ প্রকাশ করেছে তাতে রয়েছে দেহরক্ষী ব্যারি ম্যান্নাকির সঙ্গে ডায়ানার প্রেমের সম্পর্কের কথা। ক্যামিলা পার্কার আর যুবরাজ চার্লসের প্রেম নিয়ে রাজদম্পতির মধ্যে যে কথা হয়েছিল, তাও ডায়ানার মুখে উঠে এসেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here