ট্রাম্পের ‘রাষ্ট্রনায়কোচিত’ ভাষণের নেপথ্যে ইভাঙ্কা

0
194

ivanka20170120164932_41045_1488505155আন্তর্জাতিক ডেস্ক: মঙ্গলবার রাতে কংগ্রেসের যৌথ অধিবেশনে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প যে ভাষণ দেন, তা যথেষ্ট পরিমিত, পরিশীলিত ও রাষ্ট্রনায়কোচিত ছিল।

হোয়াইট হাউস কর্মকর্তারা রয়টার্সকে বলেছেন, ট্রাম্পের তুলনামূলক নরম সুরে ওই ভাষণের নেপথ্যে ছিলেন তার বড় মেয়ে ইভাঙ্কা ট্রাম্প। প্রেসিডেন্ট হিসেবে ক্ষমতা গ্রহণের পর কংগ্রেস অধিবেশনের ওই ভাষণটিই ট্রাম্পের সবচেয়ে বড় ভাষণ ছিল।

হোয়াইট হাউসে ট্রাম্পের শীর্ষ সহযোগীদের ১০ দিনের প্রচেষ্টার ফল ছিল এটি। ভাষণে নিজের নীতির ক্ষেত্রে তাৎপর্যপূর্ণ কোনো পরিবর্তন আনেননি ট্রাম্প। তবে ২০ জানুয়ারি ক্ষমতা গ্রহণের পর অভিষেক বক্তব্যে যে চড়া সুরে কথা বলেছিলেন, মঙ্গলবারের ভাষণটি তার থেকে ভিন্ন ছিল। এই ভাষণে তিনি স্বাভাবিক সুরে কথা বলেন।

প্রেসিডেন্ট হিসেবে অফিসের প্রথম সপ্তাহগুলোতে তার যে বক্তব্যগুলো বেশি বিতর্কিত হয়েছিল। এই ভাষণ থেকে তিনি সেগুলো ফেলে দেন। এর বদলে জাতীয় ঐক্যের প্রতি জোর দেন এবং বিরোধী ডেমোক্রেটিক পার্টি ও গণমাধ্যমের প্রতি আক্রমণ এড়িয়ে যান।

কংগ্রেস অধিবেশনে ভাষণের পরপরই পরিচালিত এক জরিপে দেখা যায়, সংখ্যাগরিষ্ঠ মার্কিনি ট্রাম্পের এই ভাষণের প্রশংসা করছেন। হোয়াইট হাউসের একজন সিনিয়র কর্মকর্তা বলেন, ওভাল অফিসে ভাষণের প্রস্তুতিকালে বক্তব্যের ক্ষেত্রে কিছু সুপারিশ আনেন ইভাঙ্কা।

কার্যকরভাবে সরকার পরিচালনায় প্রেসিডেন্টের মেজাজ সঠিক জায়গায় আছে কিনা এ ব্যাপারে আগের থেকে যে উদ্বেগ ছিল তা প্রশমনে বক্তব্যের ক্ষেত্রে নতুন পদ্ধতি গ্রহণে বাবাকে সহায়তা করেছে ইভাঙ্কার সুপারিশ।

হোয়াইট হাউসের অপর একজন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, ‘ট্রাম্পের ভাষণে একটা আশাবাদী সুর ছিল। এ ব্যাপারে ইভাঙ্কার একটি ভূমিকা ছিল। ওই সুর ঠিক করতে তিনি সহায়তা করেছেন।’ ভাষণে সামর্থ্যরে মধ্যে শিশুসেবা ও চাকরিকালে মাতৃত্বকালীন ছুটির পক্ষে কথা বলার জন্য বাবাকে প্রভাবিত করেন ইভাঙ্কা।

এই দুটি নীতি অনেক দিন ধরেই সমর্থন করে আসছেন ইভাঙ্কা। আর এটা কংগ্রেসের ডেমোক্রেট সদস্যদের সমর্থন পেতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের বড় মেয়ে ৩৫ বছর বয়সী ইভাঙ্কা সম্প্রতি বাবার একজন অনানুষ্ঠানিক উপদেষ্টা হিসেবে আবির্ভূত হয়েছেন। বিশেষ করে নারী ও সংখ্যালঘুর মতো গুরুত্বপূর্ণ ইস্যুগুলোতে বাবাকে পরামর্শ দিচ্ছেন তিনি।

নির্বাচনে বাবার বিজয়ের পর নিউইয়র্কের ব্যবসার স্বার্থ ছেড়ে তিনি ওয়াশিংটনে চলে আসেন। এরপর বাবার গুরুত্বপূর্ণ কর্মসূচিতে তাকে প্রায়ই যোগ দিতে দেখা যায়। হোয়াইট হাউসের একজন কর্মকর্তা বলেন, কংগ্রেস অধিবেশনের ভাষণ প্রধানত ট্রাম্প নিজেই লিখেছেন। তবে খসড়া করার সময় মেয়ে ইভাঙ্কাসহ সহযোগীদের সহায়তা নেন তিনি।