ট্রাম্পের বিরুদ্ধে যৌন নির্যাতনের অভিযোগ ৩ নারীর

0
43
আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে যৌন নির্যাতনের অভিযোগ এনে তার কংগ্রেসনাল তদন্তের বা কংগ্রেস আইন সম্পর্কিত তদন্তের দাবি জানিয়েছেন তিন নারী।
সোমবার স্থানীয় সময় সকালে নিউইয়র্ক সিটিতে এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে ওই তিন নারী এ দাবি জানান। খবর বিবিসির।
বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ওই তিন নারীর গায়ে হাত দেওয়া, জোরপূর্বক চুম্বনসহ তাদের হেনস্তা করেছেন বলে অভিযোগ করা হয়েছে।
জেসিকা লিডস, সামান্থা হলভেই ও রাচেল ক্রুকস নামের ওই তিন নারী এর আগেও এক টেলিভিশন সাক্ষাৎকারে তাদের অভিযোগের বিষয়ে বিস্তারিত জানিয়েছিলেন।
তবে প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে যৌন নির্যাতনের অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছে হোয়াইট হাউস। তাদের দাবি, ওই তিন নারী মিথ্যা অভিযোগ করছেন।
সোমবার সকালে ব্রেভ নিউ ফিল্মস নামে একটি সংগঠন এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে। সংগঠনটি গত মাসে ১৬ জন নারী ও ডোনাল্ড ট্রাম্পের যৌন নির্যাতনের অভিযোগ নিয়ে একটি ডকুমেন্টরি প্রকাশ করেছে।
অবশ্য লিডস, হলভেই ও ক্রুকস গত বছর প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগেই ট্রাম্পের বিরুদ্ধে জনসমক্ষে তাদের অভিযোগের কথা জানিয়েছিলেন।
এনবিসি নিউজকে হলভেই বলেন, ২০০৬ সালে মিস যুক্তরাষ্ট্র সুন্দরী প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠানে ট্রাম্প তাকেসহ অন্য প্রতিযোগীদের কটাক্ষ করেন। ওই অনুষ্ঠানের মূল আয়োজক ছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।
২০ বছর বয়সী সাবেক এই মিস নর্থ ক্যারোলিনা বলেন, ‘তিনি (ট্রাম্প) আমাদের সবাইকে সারিবদ্ধভাবে দাঁড় করান এবং আমার দিকে এমনভাবে তাকিয়েছিলেন যেন আমি শুধুই এক টুকরো মাংস। এটা ছিল খুবই লজ্জাকর।’
হলভেই আরো বলেন, ‘এটা কোনো দলীয় ইস্যু নয়, এটা হলো প্রতিনিয়ত একজন নারীর সঙ্গে কোন ধরনের আচরণ করা হচ্ছে, সেই বিষয়।’
এই নারীর চান, অন্য কংগ্রেস সদস্যরা এ ঘটনার তদন্ত করুক।
আর ৭০ বছর বয়সী লিডসের অভিযোগ, যখন তার বয়স ৩৮ বছর ছিল, তখন তিনি নিউইয়র্কের একটি ফ্লাইটে বিমানের কেবিনে ট্রাম্পের দ্বারা যৌন নির্যাতনের শিকার হয়েছিলেন।
লিডস বলেন, ‘তিনি (ট্রাম্প) আমার ওপর হামলে পড়েছিলেন। আমি সরে এসেছিলাম। আমি মানুষকে জানাতে চেয়েছিলাম, ট্রাম্প আসলে কোন প্রকৃতির মানুষ এবং কতটা বিকৃত।’
এ ছাড়া ২২ বছর বয়সে বর্তমান মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে যৌন নির্যাতনের শিকার হয়েছিলেন ক্রুকস। তখন তিনি একটি রিয়েল এস্টেট কোম্পানিতে রিসেপশনিস্ট হিসেবে কর্মরত ছিলেন। এই নারীর অভিযোগ, ট্রাম্প টাওয়ারে লিফটের বাইরে মার্কিন প্রেসিডেন্ট তাঁকে চুম্বন করেছিলেন।
ক্রুকস বলেন, ‘আমি বিস্মিত হয়েছিলাম।’
অবশ্য গত বছর প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তার বিরুদ্ধে আনা যৌন নির্যাতনের সব অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন। সে সময় তিনি অভিযোগকারীদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার কথাও জানান। যদিও এখন পর্যন্ত এ ব্যাপারে কোনো মামলা-মোকদ্দমা হয়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here