টুইটারে হুমকি: পরবর্তী টার্গেট যমুনা ফিউচার পার্ক (ভিডিও)!

0
171

Jamuna Future Parkগুলশানের হলি আর্টিজান রেস্তোরাঁয় সন্ত্রাসী হামলার পর এবার কুড়িলে অবস্থিত বিপণী ভবন যমুনা ফিউচার পার্ককে টার্গেট করে একটি টুইট বার্তা প্রকাশ করা হয়েছে। কামিল আহমেদ নামে এক ব্যক্তি ইংরেজি ও আরবিতে টুইট বার্তায় লিখেছেন, ‘পরবর্তী টার্গেট যমুনা ফিউচার পার্ক। মিশন ২০ জুলাই।’ এর আগে গুলশানের হলি আর্টিজানে হামলা নিয়েও টুইট করা হয়েছিল। তবে কামিল আহমেদের বিস্তারিত পরিচয় পাওয়া যায়নি।

এদিকে হুমকিদাতা কামিল আহমেদের অ্যাকাউন্টটি পরে নিষ্ক্রিয় পাওয়া গেছে। তবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একই ব্যবহারকারীর অভিন্ন বার্তা সম্বলিত টুইটের দু’টি স্ক্রিনশট পাওয়া যায়। খুঁজে পাওয়া স্ক্রিনশট দু’টিতে সময়ের ভিন্নতা রয়েছে। একটি স্ক্রিনশটে রোববার সকাল ১১টা ৪৯ মিনিট ও অপরটিতে সোমবার রাত ১২টা ৪৯ মিনিটে একই বার্তা দিয়ে এই অ্যাকাউন্ট থেকে টুইট করা হয়েছে।

‘বাংলাদেশে কেন এই হামলার পরিকল্পনা করা হচ্ছে?’ একজন ওই টুইটের নিচে মন্তব্যের ঘরে জিজ্ঞেস করলে উত্তরে লেখা হয়েছে, অমুসলিমদের হাত থেকে ইসলামকে রক্ষার স্বার্থেই এসব পরিকল্পনা এবং তারা শুধুমাত্র তাদের কর্তব্যটুকুই করছে। এরপর থেকেই টুইটারে কামিল আহমেদকে উদ্দেশ করে জবাব দিতে থাকেন দেশে বিদেশি অবস্থানকারী টুইটার ব্যবহারকারীরা।

টুইটারে এই হুমকির ঘটনায় নড়েচড়ে বসেছে পুলিশ প্রশাসন। যমুনা ফিউচার পার্ক ঘিরে কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে পার্ক কর্তৃপক্ষ। তিন স্তরের নিরাপত্তা বলয় তৈরি করা হয়েছে ওই বিপণীবিতানে। এছাড়া রয়েছে সার্বক্ষণিক র‌্যাব-পুলিশের টহল ও চেকআপ। এ ব্যাপারে যমুনা ফিউচার পার্কের ব্রান্ড অ্যান্ড মার্কেটিং বিভাগের প্রধান মেজর (অব.) মাহবুবুর রহমান শাকেব বলেন, দুশ্চিন্তা করার কারণ নেই। আমরা যথেষ্ট নিরাপত্তামূলক পদক্ষেপ নিয়েছি। তিন স্তরে আমাদের নিজস্ব নিরাপত্তা রয়েছে। এছাড়া র‌্যাব-পুলিশের সার্বক্ষণিক টহল ও সাদা পোশাকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীও সক্রিয় রয়েছে।

https://youtu.be/xIQlvjDwAyU

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here