ছোটদের এশিয়া কাপেও বাংলাদেশের পাকিস্তান-জয়

0
9

স্পোর্টস ডেস্ক: পাকিস্তানের বড়দের এশিয়া কাপে হারানোর স্মৃতি এখনও সজীব। এবার ছোটদের এশিয়া কাপেও বাংলাদেশ হারাল পাকিস্তানকে। আবুধাবিতে মাশরাফি মুর্তজারা জিতেছিলেন ৩৭ রানে। সোমবার চট্টগ্রামে তৌহিদ হৃদয়রাও হৃদয় দিয়ে খেলে জিতলেন তিন উইকেটে। জয়টা অবশ্য আরও বড় ব্যবধানে এবং সহজে মুঠোবন্দি হতে পারত। শেষদিকে দ্রুত তিন উইকেট হারানোয় সহজ জয় কঠিন হয়ে ওঠে। অভিষিক্ত অভিষেক দাস যখন চার মেরে কাক্সিক্ষত জয় এনে দেন, তখনও ১৬ বল বাকি। পাকিস্তান অনূর্ধ্ব-১৯ দলের ১৮৭ রান বাংলাদেশের যুবারা টপকে যান ১৯১/৭ করে।

চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে সোমবার এবারের আসরে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে ঘুরে দাঁড়াল স্বাগতিকরা। শ্রীলংকার কাছে হেরে টুর্নামেন্ট শুরু করা বাংলাদেশ আজ বি-গ্রুপে নিজেদের শেষ ম্যাচে মুখোমুখি হবে হংকংয়ের। ১৮৮ তাড়া করতে নামা বাংলাদেশের ইনিংস ঠিকঠাকমতোই এগোচ্ছিল। ৩৫তম ওভারে চতুর্থ উইকেট হারায় স্বাগতিকরা। জেতার জন্য প্রয়োজন আরও ৪৯ রান। হাতে ছয় উইকেট। সহজ কাজটাই কঠিন হয়ে যায় দ্রুত তিন উইকেট চলে যাওয়ায়।

দলের এক রানে প্রথম এবং ৪২ রানে তিন উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে গিয়েছিল বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল। প্রান্তিক নওরোজ নাবিল ও শামিম হোসেনের ফিফটির সৌজন্যে পাঁচ উইকেটে ১৭৪ রানে পৌঁছে। নওরোজ ৫৮ ও শামিম ৬৫ রান করে রিটায়ার্ড হার্ট হন। আকবর আলীর অপরাজিত ১৭ জয়ে ভূমিকা রাখে। তিনটি উইকেট নেন পাক যুব দলের ডান-হাতি পেসার মুহাম্মদ মুসা।

এর আগে ওপেনার সাইম আইয়ুবের ৪৯ এবং ওয়াকার আহমাদের ৬৭ রানে পাক যুব দল ১৮৭ রান করে। বাংলাদেশ যুব দলের শরিফুল ইসলাম ও রিশাদ হোসেন যথাক্রমে দুটি এবং তিনটি উইকেট নেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

বাংলাদেশ ও পাকিস্তান

পাকিস্তান অনূর্ধ্ব-১৯ দল ১৮৭/১০, ৪৫.২ ওভারে (সাইম আইয়ুব ৪৯, রোহেল নাজির ২৩, ওয়াকার আহমদ ৬৭, জুনায়েদ খান ২৪। শরিফুল ইসলাম ২/২০, রিশাদ হোসেন ৩/৫৩)।

বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল ১৯১/৭, ৪৭.২ ওভারে (সাজিদ হোসেন ২১, প্রান্তিক নওরোজ নাবিল ৫৮, তৌহিদ হৃদয় ১০, শামিম হোসেন ৬৫ (রিটায়ার্ড হার্ট), আকবর আলী ১৭*। মুহাম্মদ মুসা ৩/২৪)।

ফল : বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল ৩ উইকেটে জয়ী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here