চীনা প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে অভ্যুত্থানের চেষ্টা হয়েছিল!

0
10

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের বিরুদ্ধে অভ্যুত্থানের চেষ্টা হয়েছিল বলে জানিয়েছেন দেশটিরর সিকিওরিটি রেগুলেটরি কমিশনের চেয়ারম্যান লিউ শিউ।

চীনা কমিউনিস্ট পার্টির ১৯তম সম্মেলনের ফাঁকে আয়োজিত এক আলোচনায় এ কথা জানিয়েছেন তিনি।

লিউ শিউ ছ’জন নেতার নাম জানিয়েছেন। তারা হলেন— বো শিলাই, লিং শিহুয়া, ঝৌ ইয়ংক্যাং‌, শু কাউহোই, গুও বোশিয়ং, সান ঝেংকাই।

শি‌উ জানিয়েছেন, এই ছ’জন নেতাই কমিউনিস্ট পার্টিতে অত্যন্ত ক্ষমতাশালী ছিলেন, কিন্তু তারা প্রবলভাবে দুর্নীতিগ্রস্ত ছিলেন এবং প্রেসিডেন্ট শিকে সরিয়ে ক্ষমতা দখলের ছক কষছিলেন।

লিউ শিউয়ের কথায়, অভ্যুত্থানের ছক ভেস্তে দিয়ে প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং চীনের কমিউনিস্ট পার্টিকে এবং চীনকে রক্ষা করেছেন, প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং সমাজতন্ত্রকে রক্ষা করেছেন।

যে ছ’জনকে দল এবং প্রশাসনের সব পদ থেকে সরিয়ে দিয়ে বন্দি করে ফেলা হয়েছে, তারা দলে শি জিনপিংয়ের বিরোধী গোষ্ঠীর নেতা হিসেবেই পরিচিত চিলেন। বো শিলাই এবং সান ঝেংকাই প্রেসিডেন্ট শিয়ের নিরঙ্কুশ কর্তৃত্বের পক্ষে খুব বড় বাধা ছিলেন বলে বেইজিং সূত্রের খবর। সব কাঁটা উপড়ে ফেলে চীনা কমিউনিস্ট পার্টিতে নিজের কর্তৃত্ব আরও সুনিশ্চিত করতেই এই নেতাদের জেলে পাঠিয়ে দেয়া হল বলে একটি শিবিরের দাবি।

চীনের প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর থেকে গত পাঁচ বছরে দল এবং দেশের ওপর নিজের কর্তৃত্ব আরও সুদৃঢ় করে নেয়া শি জিনপিং এ বারের পার্টি কংগ্রেসেও যে জয়ী হবেন, তা নিয়ে কারও সংশয় নেই। ফলে পরবর্তী পাঁচ বছরও চীনা কমিউনিস্ট পার্টির সাধারণ সম্পাদক, চীনের প্রেসিডেন্ট এবং চীনের সেন্ট্রাল মিলিটারি কমিশনের চেয়ারম্যান পদে তিনিই থাকবেন।
তাই শি-এর বিরুদ্ধে অভ্যুত্থানের চেষ্টা হয়েছিল বলে যে কথা লিউ শিউ জানালেন, তাতে চীনে তো বটেই, চীনের বাইরেও চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

মাও জে দং-এর পরে চিনা কমিউনিস্ট পার্টিতে শি চিনফিং-এর সমান ক্ষমতাশালী নেতা একজনও আসেননি, এ কথা এখন চিনে প্রায় সকলের মুখে মুখে ফিরছে। সেই শি চিনফিং-এর বিরুদ্ধেই দলের বেশ কয়েকজন ক্ষমতাশালী নেতা অভ্যুত্থান ঘটানোর চেষ্টা করেছিলেন বলে যে কথা চিনের সরকারের তরফে জানানো হয়েছে, তা খুব স্বাভাবিক মনে হচ্ছে না ওয়াকিবহাল মহলের কাছে।

লিউ শিউ জানিয়েছেন, প্রেসিডেন্ট শি চিনফিং গোটা দেশে দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান তীব্র করেছেন। দলেরই কিছু ক্ষমতাশালী পদাধিকারী প্রেসিডেন্টের এই পদক্ষেপকে একেবারেই ভাল চোখে দেখছিলেন না। দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান শুরু হওয়ায় দল ও প্রশাসনের ওই সব পদাধিকারীরা নিজেরাই বিপন্ন হয়ে পড়েছিলেন, সেই কারণেই প্রেসিডেন্ট শি-এর বিরুদ্ধে অভ্যুত্থান ঘটানোর চক্রান্ত করেছিলেন তাঁরা। লিউ শিউ-এর পার্টি কংগ্রেসের ফাঁকে যা জানিয়েছেন, তার সারকথা হল এই। হংকং-এর সংবাদপত্র সাউথ চায়না মর্নিং পোস্ট সূত্রে লিউ শিউ-এর এই বক্তব্যের কথা জানা গিয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here