চিনিকে ‘না’ বলুন

0
254
download-1চিনি ছাড়া চা? অনেকেই পান করেন বটে, কিন্তু বেশিরভাগের জন্যই ব্যাপারটা খুবই কষ্টের। যেসব ক্ষেত্রে মিষ্টি স্বাদ পেয়ে আপনার স্বাদগ্রন্থি অভ্যস্ত, সেসব ক্ষেত্রে হঠাৎ সেই স্বাদ না পেলে সে যেন বিদ্রোহ করে ওঠে। তবু ডায়েট চার্ট মানতে গিয়ে চিনিকে বাদ দেওয়ার কথা ভাবেননি, এমন কেউ হয়ত নেই।
সুইডিশ ডাক্তার আন্দ্রিস এনফেল্ডস পরামর্শ দেন, শরীরের প্রয়োজন অনুযায়ী খাবার গ্রহণে মনোযোগ দিতে।
আমরা খাবার সম্পর্কে যে যে ধারণা পোষণ করি তার অনেক কিছুই মিথ বা রটনা। শক্তি পাওয়া যায় মাত্র দু’টি উৎস থেকে। একটি হল, শর্করা যার মাঝে আছে চিনি আর অন্যটি চর্বি বা স্নেহ জাতীয় খাবার। বছরের পর বছর আমরা জেনে এসেছি, চর্বি জাতীয় খাবার মানেই খারাপ। তাই ছিপছিপে গড়ন পেতে হলে কম চর্বিযুক্ত খাবার খেতে হবে। কিন্তু আপনি কি জানেন, চিনি ছেড়ে দেওয়া চর্বি জাতীয় খাবার ছাড়ার চেয়েও বেশী কার্যকর?
চিনি ছেড়ে দিলে যে মজার ব্যাপারগুলো হবে-
১। একবার আপনি চর্বি খাওয়ার ভয় এড়িয়ে চিনি খাওয়া বাদ দিয়ে দেখুন (তবে তার মানে এই নয় যে আপনি অতিরিক্ত চর্বি গ্রহণ শুরু করবেন)। আপনি স্থায়ীভাবে ছিপছিপে গড়ন ধরে রাখতে পারবেন। বোনাস হিসেবে পাবেন সুস্বাস্থ্য, আরও শক্তি এবং চমৎকার ত্বক ও চুল।
২। পেটের বা কোমরের মেদ ঝরতে শুরু করবে আপনার। নতুন পোশাক কেনার সময় আর দুশ্চিন্তায় ভুগতে হবে না।
তাই আসুন, ৩ দিনের জন্য ছেড়ে দিই চিনি খাওয়া। হয়ে যাক একটা টেস্ট। স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ৩ দিনেই আপনি উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন লক্ষ্য করবেন। যারাই এই উপায়টি অবলম্বন করেছেন তারাই বলেছেন, এরপর চিনি খাওয়ার আগ্রহই কমে গেছে, এমনকি অন্যান্য খাবার খাওয়ার ক্ষেত্রেও রুচিকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারছেন তারা।
এই ৩ দিন মেনে চলুন এই মেনু: 
সকাল-
* মাংস জাতীয় কোন খাবার
* অল্প মেয়োনিজ দিয়ে সেদ্ধ ডিম
* ক্রিম দিয়ে কফি
* পনির
* প্যানকেক
* সবুজ সবজি এবং জলপাইয়ের একটি সালাদ
দুপুর-
* মাংসজাত খাবার যেমন কাটলেট, রসুন দিয়ে ভাজা মাংস
* স্যুপ
* সালাদ
* মাছের বিভিন্ন পদ
* শর্করা আপনার প্রয়োজনমত
রাতের খাবার-
* পর্যাপ্ত পরিমাণে সবজি (ব্রকলি, ফুলকপি, পালং শাক, ক্যাপসিকাম)
* সামুদ্রিক মাছ, এভাকাডো
* সকালের নাস্তায় খেয়েছেন এমন যে কোনকিছু
খাবারগুলো আপনি যেকোন বেলায় অদলবদল করে খেতে পারেন। আর খাওয়ার পরিমাণ নিয়েও বিশেষ চিন্তাভাবনার প্রয়োজন নেই। আপনার যতটা ইচ্ছা ততটা গ্রহণ করুন। ভয় পাওয়ার কোন কারণ নেই।
মনে রাখবেন, আপনি শুধু বাদ দেবেন চিনি। চা, কফি, কেক যে কোনকিছুতে চিনি গ্রহণ থেকে সম্পূর্ণ বিরত থাকুন। আপনি যদি এটা মেনে চলতে পারেন তাহলে দেখবেন, আপনার ক্ষুদা কমে গেছে। খাবার দেখলেই আর খেতে ইচ্ছা করছে না আপনার। অন্ত্রের যে কোন সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন, রক্ত চাপ নিয়ন্ত্রণে থাকবে। আপনার কাজ করার ক্ষমতা বেড়ে যাবে বহুগুণে। আপনি থাকবেন কর্মচাঞ্চল্যে ভরপুর।

তথ্যসূত্র-  ব্রাইট সাইড: What Will Happen if You Give Up Eating Sugar for 3 Days

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here