চার দেশের সম্পর্ক ছেদ ভুল সিদ্ধান্ত: কাতার

0
134

quatar_48803_1496660433আন্তর্জাতিক ডেস্ক: কাতারের সঙ্গে চার দেশের সম্পর্ক ছেদের ঘোষণার পর প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে দেশটি। ভুল তথ্য ও যাচাই-বাছাই ছাড়াই অবিবেচনা প্রসূত চার দেশ সম্পূর্ণ ভুল সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে দাবি করেছে কাতার। খবর দ্যা গার্ডিয়ান।

কাতারের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে সোমাবার এক বিবৃতিতে এ প্রতিক্রিয়া জানানো হয়েছে।

এর কয়েক ঘণ্টা আগে সৌদি আরব, মিশর, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও বাহরাইন কাতারের সাথে সম্পর্ক ছেদের ঘোষণা দেয়।

দেশগুলোর অভিযোগ, কাতার মুসলিম ব্রাদারহুডসহ অন্যান্য জঙ্গি দলগুলোকে সমর্থন ও সহযোগিতা দেয়। ফলে এ অঞ্চল অস্থিতিশীল হচ্ছে।

এছাড়া ইরানের সঙ্গে কাতারের সুসম্পর্ক এই সম্পর্ক ছেদের অন্যতম কারণ বলে ধারণা করা হচ্ছে।

তবে এসব অভিযোগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন দাবি করে ওই বিবৃতি দিয়েছে কাতারের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

কাতার এই অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছে, এই অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা। এটি মূলত কাতারকে হেয়প্রতিপন্ন করতে মিডিয়ার একটি পরিকল্পিত নেতিবাচক প্রচারণা।

বিবৃতিতে দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ বিন আব্দুল রহমান আল-থানি বলেন, ‘আমরা সৌদি আরব, মিশর, আবর আমিরাত ও বাহরাইনের এমন সিদ্ধান্তে খুবই অবাক হয়েছি এবং এটি খুবই দুঃখজনক। আমরা পরস্পর স্থল, আকাশসীমা ও কূটনৈতিক বন্ধনে আবদ্ধ। যারা এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা যাচাই-বাছাই ছাড়াই সম্পূর্ণ ভুল ও অনুমান নির্ভর তথ্যের উপর ভিত্তি করে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে।’

তবে চার দেশ সম্পর্ক ছেদ করলেও এর ফলে কাতারের মানুষের সাধারণ জীবন যাপনে কোনো প্রভাব পড়বে না বলে দাবি করেছে মন্ত্রী।

এজন্য কাতার সরকার প্রয়োজনীয় সব রকম ব্যবস্থা নেবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, সম্প্রতি কাতারের বিরুদ্ধে একটি বিশেষ গোষ্ঠী নেতিবাচক প্রচারণা চালায়। যেটি ছিল সম্পূর্ণ ভুয়া তথ্যের প্রচারণা। তাদের উদ্দেশ্য কাতারকে হেয়প্রতিপন্ন করা।

বিবৃতিতে বলা হয়, কাতার গালফ কো-অপারেশন কাউন্সিলের (পারস্য উপসাগরীয় সহযোগিতা পরিষদ) সক্রিয় সদস্য এবং কাউন্সিলের নিয়ম-কানুন মানতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। কাতার অন্যের সার্বভৌমত্বের প্রতি সম্মান প্রদর্শন করে এবং অন্যের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করে না। কাতার সন্ত্রাসবাদ ও মৌলবাদের বিরুদ্ধে সংগ্রামে সর্বোচ্চ ভুমিকা রাখছে।

কাতারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, কাতারের বিরুদ্ধে যারা প্রপাগান্ডা চালাচ্ছিল তারা স্পষ্টত ব্যর্থ হয়ে নতুন কৌশলে নেমেছে। কয়েকটি দেশের সম্পর্কচ্ছেদের মধ্য দিয়ে প্রমাণ হয় কাতারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র অব্যহত রয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here