গর্ভাবস্থায় যা করলে সুস্থ থাকবে আপনার শিশু

0
151

8অনলাইন ডেস্ক: গর্ভাবস্থায় মায়েরা বিভিন্ন সমস্যা যেমন হতাশা, অসুস্থতা, মন মেজাজ বিগড়ে যাওয়া, পায়ে হালকা ব্যথা অনুভব করা, শ্বাসপ্রশ্বাসে সমস্যাসহ নানা সমস্যায় ভুগে থাকে।

নিচে কয়েকটি যোগব্যয়ামের নাম উল্লেখ করা হল যেগুলো নিয়মিত করলে গর্ভবতী মায়েরা সুস্থ থাকবে এবং সুস্থ সন্তানের জন্ম দিবে।

১.পা গুলো সমান্তরাল করে বসে পড়ুন। দীর্ঘশ্বাস নিন এবং এর পরে আপনার কাঁধ বরাবর হাতের বাহুগুলো রাখুন। এখন শ্বাস ত্যাগ করুন এবং আপনার মাথা ও হাত দু’খানা ধীরে ধীরে ডান দিক বরাবর নিয়ে আসেন। এক্ষেত্রে হাঁটু ভাঙ্গার দরকার নেই। এখন পূর্ববস্থায় নিজেকে নিয়ে আসুন। এভাবে বারবার করতে থাকুন। এই ব্যয়াম গর্ভবতীদের জন্য খু্বই উপকারী।

২. বার ইঞ্চির মত পা দু’খানা ফাঁক রেখে দাঁড়ান। পা দু’খানা সমন্তরাল হতে হবে। দুই সেকেন্ড ধরে শ্বাস নিন। বাহুগুলোকে কাঁধ বরাবর নিয়ে যান। হাতের কব্জিগুলো ধীরে ধীরে নিচের দিকে নামান এবং ধীরে ধীরে শ্বাস নিন। পায়ের আঙ্গুলের উপর দাঁড়াতে যদি আপনি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ না করেন সেক্ষেত্রে আপনি চওড়া হয়ে দাঁড়িয়ে থাকতে পারেন এবং সেভাবে আপনার হাতগুলোও রাখুন।

৩. চব্বিশ ইঞ্চি দুরুত্বে পা দু’খানা রেখে দাঁড়িয়ে থাকুন। আপনি এই ব্যয়ামটা দেয়ালের সাহায্য নিয়ে করতে পারেন। হাতগুলো কোণ আকৃতির করে উপরে তুলুন। দীর্ঘশ্বাস নিন এবং মাথা, ঘাড় ও হাত নিয়ে বাম দিকে ঝুঁকে পড়ুন।

৪. আপনার হাঁটু ভাজ করে পিছনের দিকে নিয়ে চিৎ হয়ে শুয়ে পড়ুন যাতে আপনার হাটুগুলো একত্রে থাকে এবং দীর্ঘশ্বাস নিন। যতক্ষন ভাল লাগে ততক্ষন এভাবে থাকুন।

৫. চিৎ হয়ে শুয়ে পড়ুন এবং আপনার পাগুলো সোজা রাখুন। আপনার হাতগুলো টি-ভঙ্গিতে রাখুন এবং কব্জির তালুগুলোকে নিচের দিকে রাখুন এবং যদি সম্ভব হয় পায়ের আঙ্গুলগুলোকে শক্তভাবে ধরে রাখুন।

৬. পায়ের আঙ্গুলগুলোকে প্রসারিত করে কোন মাদুরে বসে পড়ুন। মাদুরের সাথে পায়ের সংস্পর্শে এনে ‘নমস্তে’ ভঙ্গিতে বসে পড়ুন। আপনার হাতগুলো হাঁটুতে রাখুন। যতক্ষন পর্যন্ত আরামদায়ক অনুভব করেন ততক্ষন পর্যন্ত ব্যয়ামটা চালিয়ে যান।

৭.উল্লেখ্য, কিছু যোগব্যয়াম আছে যেগুলো গর্ভবস্থায় করা যায় না, সেগুলো এড়িয়ে চলতে হবে।

-সামনের দিকে বেশি ঝুঁকলে যদি তলপেঠে ব্যথা হয় তাহলে ওটা এড়িয়ে যাওয়াই ভাল।

-প্রত্যেকটা ব্যয়ামই অত্যন্ত সতর্কতার সাথে করতে হবে।

-যোগব্যয়াম করতে গিযে গর্ভবতী মায়েরা যদি কোন সমস্যা অনুভব করে তাহলে সাথে সাথে ডাক্তারের পরামর্শ নিতে হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here