কোটা সংস্কার আর নিরাপদ সড়কের দাবিতে ছাত্র ধর্মঘট আজ

0
21

ঢাকা: কোটা সংস্কারের ৩ দফা দাবির পাশাপাশি নিরাপদ সড়ক দাবির ৯ দফা অন্তর্ভুক্ত করে সারাদেশে ছাত্র ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনকারী সাধারণ শিক্ষার্থী ও চাকরি প্রত্যাশীদের প্ল্যাটফর্ম বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ। শুক্রবার (৩ আগস্ট) বিকালে জাতীয় প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এই কর্মসূচি ঘোষণা করে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের নেতারা।

লিখিত বক্তব্যে সংগঠনটির যুগ্ম আহ্বায়ক বিন ইয়ামিন মোল্লা বলেন, শনিবার সকাল থেকে সারাদেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কোনো ক্লাস-পরীক্ষা হবে না এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের গাড়ি চলাচল করবে না। নিরাপদ সড়কের দাবিতে সারাদেশে শিক্ষার্থীদের চলমান আন্দোলনে ঢাকার মিরপুর, দনিয়া, নারায়ণগঞ্জ, নোয়াখালী, চাঁদপুরসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে পুলিশ এবং সন্ত্রাসীদের হামলার প্রতিবাদে সব স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সমন্বয়ে দেশব্যাপী ছাত্রধর্মঘট ঘোষণা করা হলো। দেশ ও জাতির বৃহত্তর স্বার্থে ধর্মঘট কর্মসূচিতে দেশের সচেতন শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও নাগরিকদের অংশগ্রহণ করার অনুরোধ করা হলো।

পরে ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের পক্ষ থেকে গণমাধ্যম কর্মীদের কাছে সংগঠনের আহ্বায়ক হাসান আল মামুন স্বাক্ষরিত একটি বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়। এতে বলা হয়, সরকারকে সাধারণ শিক্ষার্থীদের ৯ দফা, হামলাকারীদের বিচার এবং কোটা সংস্কার আন্দোলনের ৩ দফা দাবি মেনে নিয়ে অতি দ্রুত উদ্ভূত সমস্যা সমাধানের আহ্বান জানাই।

 

প্রসঙ্গত, গত রবিবার (২৯ জুলাই) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে হোটেল রেডিসনের বিপরীতে এমইএস বাস স্ট্যান্ডে জাবালে নূর পরিবহনের দুই বাসের চালকের রেষারেষির ফলে একটি বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে শহীদ রমিজউদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দুই শিক্ষার্থী নিহত ও অন্তত ১২ শিক্ষার্থী আহত হন। নিহতদের একজন ওই কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র আবদুল করিম (১৬), অন্যজন একাদশ শ্রেণির ছাত্রী দিয়া খানম মিম (১৫)।

ওই দুর্ঘটনার দিন থেকেই দোষী পরিবহনকর্মীদের বিচার, নিরাপদ সড়ক, শিক্ষার্থী বান্ধব পরিবহন ব্যবস্থা ও নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খানের পদত্যাগসহ ৯ দফা দাবি জানাচ্ছেন শিক্ষার্থীরা। পাশাপাশি তারা সড়কে অবস্থান নিয়ে গাড়ি ও গাড়ির চালকের লাইসেন্স পরীক্ষা করেন।

আন্দোলনের পঞ্চম দিনে রাজধানী ঢাকা, চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, সিলেট, বরিশাল, রংপুর, বগুড়া, যশোরসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় দিনভর বিক্ষোভ করেন শিক্ষার্থীরা।

এদিকে শুক্রবার শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের ৬ষ্ঠ দিন থেকে এসে ‘নিরাপত্তাহীনতার’ অজুহাতে রাজধানীর সব রুটের যাত্রীবাহী বাস চলাচল বন্ধ রেখেছেন পরিবহন মালিকরা। যা আজও অব্যাহত রয়েছে।

এদিকে শিক্ষার্থীদের এই আন্দোলনে ‘ছাত্রদল ও ছাত্র শিবিরের অনুপ্রবেশ ঘটছে-’ বৃহস্পতিবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর এমন মন্তব্যের পর শুক্রবার শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে ওবায়দুল কাদের বলেছেন, তোমাদের (শিক্ষার্থীদের) উসকানি দিতে একটি অপশক্তি চেষ্টা করছে। তাদের উসকানিতে সাড়া দিও না। শিক্ষার্থীদের যৌক্তিক দাবি মেনে নেয়া হবে বলেও জানান ওবায়দুল কাদের।