কিমের সঙ্গে দ. কোরিয়ার ঐতিহাসিক সাক্ষাৎ

0
74

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্টের পক্ষ থেকে পাঠানো একটি উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন প্রতিনিধিদলের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উন। ২০১১ সালে উত্তর কোরিয়ার ক্ষমতা গ্রহণ করার পর এই প্রথম সিউলের কোনো প্রতিনিধিদলের সঙ্গে সাক্ষাৎ করলেন কিম জং-উন।

এ সাক্ষাতের কিছুক্ষণ পর দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্টের দপ্তর থেকে এ খবরের সত্যতা নিশ্চিত করা হয়।

গতমাসে দক্ষিণ কোরিয়ায় অনুষ্ঠিত শীতকালীন অলিম্পিক উপলক্ষে কিম জং-উনের বোনের নেতৃত্বাধীন একটি উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধিদলের সিউল সফরের ফলে শত্রুভাবাপন্ন দুই কোরিয়ার মধ্যে সম্পর্কের উন্নতি হয়।

পিয়ংইয়ং সফররত দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিনিধিদলে নজিরবিহীনভাবে মন্ত্রী পর্যায়ের দু’জন কর্মকর্তা রয়েছেন। তারা হলেন দক্ষিণ কোরিয়ার গোয়েন্দা প্রধান সুহ হুন এবং জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা চুং ইউই-ইয়ং।

দক্ষিণ কোরিয়ার ১০ সদস্যের প্রতিনিধিদল দুই কোরিয়ার মধ্যে সম্পর্ক উন্নয়নের পাশাপাশি আমেরিকার সঙ্গে উত্তর কোরিয়ার সরাসরি আলোচনার পরিবেশ তৈরি করার চেষ্টা করবে।

সফর শুরু করার আগে চুং এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, তিনি দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে-ইনের পক্ষ থেকে সংলাপের মাধ্যমে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক উন্নয়নের বার্তা নিয়ে পিয়ংইয়ং সফরে যাচ্ছেন।

তবে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প পিয়ংইয়ংয়ের সঙ্গে আলোচনায় বসার যে পূর্বশর্ত দিয়েছেন তাতে আমেরিকার সঙ্গে উত্তর কোরিয়ার সরাসরি আলোচনার পরিবেশ তৈরি করা সম্ভব কিনা তা নিয়ে পর্যবেক্ষকরা সংশয় প্রকাশ করেছেন।

ট্রাম্প বলেছেন, উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে যেকোনো আলোচনার ফলাফল হতে হবে দেশটির পরমাণু অস্ত্র নির্মূল করার সিদ্ধান্ত নেয়া। কিন্তু উত্তর কোরিয়া এ ধরনের পূর্বশর্ত মেনে আলোচনায় বসতে চরম অনীহা প্রকাশ করেছে। পার্সটুডে

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here