এরদোগানের সোনার টয়লেট ‘প্রমাণ দিতে পারলে প্রেসিডেন্টশিপ ছেড়ে দেব’

0
19

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: তুরস্কে আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন নিয়ে দেশটির রাজনীতি বেশ উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে। বর্তমান প্রেসিডেন্ট ও আসন্ন নির্বাচনে প্রেসিডেন্ট প্রার্থী রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগানের বিরুদ্ধে সোনার টয়লেট ব্যবহারের অভিযোগ তুলেছে বিরোধীরা।

আগামী ২৪ জুন দেশটিতে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। বর্তমান প্রেসিডেন্ট এরদোগান আগাম নির্বাচনের সিদ্ধান্ত নেয়ায় এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।

নির্বাচন সামনে রেখে এরদোগান ও তার বিরোধীরা মাঠে সরব হয়েছে। প্রধান বিরোধী দল রিপাবলিকান পিপলস পার্টির (সিএইচপি) নেতা কেমাল কিলিক দারোগলো নির্বাচনী জনসভায় এরদোগানের বিলাসবহুল জীবনযাপনের অভিযোগ এনে তার কড়া সমালোচনা করেছেন।

শনিবার ইজমির প্রদেশের ইজিয়ান শহরে সমাবেশে তিনি বলেন, ‘আপনি (এরদোগান) নিজের জন্য প্রাসাদ বানিয়েছেন, প্লেন কিনেছেন, মারসিডিজ গাড়ি কিনেছেন, স্বর্ণের আসন কিনেছেন, যেটি আপনি টয়লেটে ব্যবহার করেন।’

কেমাল কিলিক দারোগলোর এ অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করে তা প্রমাণের জন্য চ্যালেঞ্জ জানিয়েছেন। সোনার টয়লেট প্রমাণ করতে পারলে প্রেসিডেন্ট পদ থেকে পদত্যাগেরও ঘোষণা দিয়েছেন এরদোগান।

এরদোগান বলেন, কেমাল কিলিক দারোগলো যদি একটিও সোনার টয়লেটের সিট দেখাতে পারেন তাহলে তিনি পদত্যাগ করতে সম্মত আছেন।

রোববার রাতে রাষ্ট্রীয় সম্প্রচারকারী গণমাধ্যম ‘টিআরটি’-এর সঙ্গে সাক্ষাৎকালে এরদোগান বলেন, ‘আমি তাকে (কিলিকদারোগলু) আমার প্রাসাদে আসার জন্য আমন্ত্রণ জানাচ্ছি। তিনি আমার কোনো ওয়াশরুমের ভেতর এই ধরনের একটিও স্বর্ণের টয়লেট সিট খুঁজে পেলে আমি আশ্চর্য হব।’

সূত্র: জেরুজালেম পোস্ট।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here