এবার প্যাটেন্ট যুদ্ধে মুখোমুখি নকিয়া ও অ্যাপল

0
168

164843nokiaস্যামসাংয়ের বিরুদ্ধে অ্যাপলের ডিজাইন নকলের অভিযোগ নতুন ঘটনা নয়। মাঝে মাঝেই স্যামসাং বনাম অ্যাপলের খবর শিরোনাম হতো।

কিন্তু এবার অ্যাপলের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছে একসময়ের শীর্ষ মোবাইলফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান নকিয়া। তারা অ্যাপলের বিরুদ্ধে ৩২টি প্যাটেন্ট খর্বের অভিযোগ এনেছে। পাল্টা অভিযোগও তুলেছে অ্যাপল।

জার্মানির ম্যানজেইম এবং মিউনিখের আদালতে অভিযোগ করা হয়। অভিযোগ দেওয়া হয় আমেরিকার ইস্টার্ন ডিস্ট্রিক্ট অব টেক্সাসের ডিস্ট্রিক্ট কোর্টে। বলা হয়, ডিসপ্লে, ইউজার ইন্টারফেস, সফটওয়্যার, অ্যান্টেনা, চিপসেট এবং ভিডিও রেকর্ডিং বিষয়ক প্যাটেন্ট খর্ব করার অভিযোগ করেছে নকিয়া।

এক বিবৃতিতে নকিয়া জানায়, ২০১১ সালে বেশ কিছু প্যাটেন্টের ওপর লাইসেন্স করে নকিয়া টেকনোলজিস। অ্যাপলের বেশ কিছু পণ্যে নকিয়ার প্যাটেন্ট করা প্রযুক্তি ব্যবহার করা হচ্ছে।

সম্প্রতি অ্যাপল আবার অ্যাকাসিয়া রিসার্চ করপোরেশন এবং কনভারসান্ট ইন্টেলেকচুয়াল প্রোপার্টি ম্যানেজমেন্ট ইনকরপোরেটের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। অভিযোগ, তারা গোপনে নকিয়ার সঙ্গে আঁতাত করে অ্যাপলের কাছ থেকে অবৈধভাবে রেভিনিউ আদায়ের চেষ্টা করছে।

অ্যাপলের মুখপাত্র জোশ রোজেনস্টক বলেন, আমাদের পণ্যে প্যাটেন্টের নিরাপত্তা রক্ষায় সঠিক মূল্য পরিশোধে সব সময় প্রস্তুত আমরা। দুর্ভাগ্যজনকভাবে নকিয়া তাদের প্যাটেন্ট রক্ষায় সঠিক মূল্য পরিশোধ করছে না। কিন্তু এখন তারা অভিযোগ তুলে অবৈধভাবে অ্যাপলের কাছ থেকে রয়ালটি আদায় করতে চাইছে।

এ বিষয়ে তাৎক্ষণিক মন্তব্য করনি অ্যাকাসিয়া এবং কনভারসান্ট। নকিয়া ও অ্যাপলের এই বিরোধী অবস্থান স্মার্টফোনের দুনিয়ায় প্যাটেন্ট যুদ্ধের আশঙ্কা ছড়িয়ে দিয়েছে। আসলে এর শুরু ৫ বছর আগে। তখন অ্যাপল তাদের একটি প্যাটেন্ট খর্বের অভিযোগ তোলে স্যামসাংয়ের বিরুদ্ধে। এতে উভয় পক্ষ ক্ষতিগ্রস্ত ও লাভবান হয়।

২০০৯-২০১৩ সাল পর্যন্ত অ্যাপলের ডিরেক্টর অব প্যাটেন্ট লাইসেন্সিং অ্যান্ড স্ট্র্যাটেজি হিসাবে কাজ করেছেন বোরিস টেকস্লার। তিনি অটোয়া-ভিত্তিক কনভারসান্টের চিফ এক্সিকিউটিভ হিসাবে যোগ দেন। আর তার পরদিনই অ্যাকাসিয়া, করভারসান্ট এবং নকিয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগ দাখিল করে অ্যাপল। ক্যালিফোর্নিয়ার নিউপোর্ট বিচের প্যাটেন্ট লাইসেন্সিং ফার্ম অ্যাসাকিয়া। গত সেপ্টেম্বরে এই ফার্ম অ্যাপলের বিরুদ্ধে প্যাটেন্ট খর্বের অভিযোগ তোলে। টেক্সাসের এক জুরি তাদের পক্ষে ২২ মিলিয়ন ডলার প্রদানের নির্দেশ দেন।

একইভাবে, গত সপ্তাহে কনভারসান্টের অভিযোগের ভিত্তিতে সিলিকন ভ্যালি জুরি কম্পানিটিরি পক্ষে ৭.৩ মিলিয়ন ডলার প্রদানের নির্দেশ দেন। হাজারো প্যাটেন্টের অধিকারী কম্পানিটি অ্যাপলের বিরুদ্ধে দুটো স্মার্টফোনের প্যাটেন্ট খর্বের অভিযোগ তোলে।

এক সময় দুনিয়ার সবচেয়ে জনপ্রিয় স্মার্টফোন নির্মাতা হিসাবে মাথা তুলে দাঁড়ায় নকিয়া। কিন্তু ২০০৭ সালে অ্যাপলের আইফোন বাজারে আসার পর তাদের জনপ্রিয়তা কমতে থাকে। এক সময় এই ফিনিশিয় প্রতিষ্ঠান তাদের হ্যান্ডসেটের ব্যবসা মাইক্রোসফটের কাছে বিক্রি করে দেয়। তবে এ বছর মাইক্রোসফট তাদের নকিয়া ফিচার ফোনের ব্যবসা বিক্রি করে দেয় এইচএমডি গ্লোবাল নামের একটি প্রতিষ্ঠানের কাছে। এই কম্পানির সঙ্গে ১০ বছরের চুক্তি করেছে নকিয়া। তারা বাজারে কমদামি নকিয়া ফোন আনবে। আগামী বছরই নতুন ফোনের সঙ্গে পরিচয় ঘটাতে চলেছে কম্পানিটি।
সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here