উত্তাল কাশ্মীর, নিহত ৯

0
105

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: কাশ্মীর উপত্যকা উত্তাল হয়ে উঠেছে। ভারতের জম্মু ও কাশ্মির রাজ্যে হিজবুল কমান্ডার বুরহান মুজাফ্ফর ওয়ানির শেষকৃত্যকে কেন্দ্র করে এই বিক্ষোভ। এতে অশান্ত এই উপত্যকায় আজ শনিবার নয়জন নিহত হয়েছেন। উত্তেজিত জনতা তিনটি থানায় আগুনও লাগিয়ে দেন। পুলিশ জানিয়েছে, গোটা উপত্যকায় কারফিউ জারি থাকবে। এখন পর্যন্ত প্রায় ২০০ জন আহত হয়েছেন। তাঁদের মধ্যে ৯০ জনের বেশি নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্য।

কাশ্মির পুলিশের মহাপরিদর্শক এজেএম গিলানি সংবাদ সম্মেলনে সংঘর্ষে হতাহতের এ তথ্য জানিয়েছেন বলে বার্তা সংস্থা আইএএনএসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

শুক্রবার দক্ষিণ কাশ্মিরের অনন্তনাগ এলাকায় নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ বিচ্ছিন্নতাবাদী গোষ্ঠী হিজবুল মুজাহিদিনের তরুণ কমান্ডার ওয়ানি ও তার দুই সহযোগী নিহতের প্রতিবাদে পুরো কাশ্মিরজুড়ে বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে।

পরিস্থিতি মোকাবেলায় শ্রীণগরের অধিকাংশ এলাকা ও দক্ষিণ কাশ্মিরের বেশ কয়েকটি এলাকায় সান্ধ্য আইন জারি করেছে কর্তৃপক্ষ।

এদিকে পুরো কাশ্মিরজুড়ে মোবাইল ইন্টারনেট সেবা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। জম্মু বেইস ক্যাম্প থেকে শুরু হতে যাওয়া অমরনাথ যাত্রা কয়েকদিনের জন্য স্থগিত করা হয়েছে। স্থগিত করা হয়েছে স্কুল থেকে বিশ্ববিদ্যালয় পর্যন্ত সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও সরকারি চাকরির পরীক্ষা।

বছর দু-এক ধরে বুরহান ওয়ানি কাশ্মীরিদের মুখ হয়ে দাঁড়িয়েছিলেন। দক্ষিণ কাশ্মীরের ট্রাল এলাকার ২২ বছরের এই সুদর্শন যুবক হয়ে ওঠেন হিজবুল মুজাহিদ্দিনের স্বঘোষিত কমান্ডার। তাঁরই সঙ্গে অন্তত আরও ছয় যুবক ঘর ছাড়েন। পরে সামাজিক মাধ্যমগুলোতে তাঁদের সশস্ত্র ছবি ছড়িয়ে পড়ে।

গতকাল শুক্রবার গোয়েন্দা সূত্রে খবর পেয়ে নিরাপত্তারক্ষীরা দক্ষিণ কাশ্মীরের কোকরনাগ এলাকায় হানা দেন। বুরহানের সঙ্গে তাঁর দুই সঙ্গীও এই হানায় নিহত হন। রাজ্য সরকার এই জঙ্গির মাথার দাম ১০ লাখ রুপি ঘোষণা করেছিল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here