উত্তর কোরিয়ার ‘ব্যর্থ’ ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা

0
132

north_koria_44839_1492312016আন্তর্জাতিক ডেস্ক: উত্তেজনাকর পরিস্থিতির মধ্যেই রোববার ফের ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়েছে উত্তর কোরিয়া।

দেশটির পূর্বাঞ্চলীয় উপসাগরে এই পরীক্ষা চালানো হয়। তবে কী ধরনের ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালানো হয়েছে, তা জানা যায়নি।

এদিকে, প্রতিবেশী দক্ষিণ কোরিয়া ও তাদের মিত্র যুক্তরাষ্ট্র দাবি করেছে, উত্তর কোরিয়ার এই ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা ব্যর্থ হয়েছে। খবর রয়টার্স ও বিবিসির।

দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, উত্তর কোরিয়া দেশটির পূর্বাঞ্চলে সিনপোর কাছে রোববার ওই পরীক্ষা চালানোর চেষ্টা করে। কিন্তু উৎক্ষেপণের পরপরই সেটি বিস্ফোরিত হয়ে যায়। এ বিষয়ে আরও বিস্তারিত জানার চেষ্টা করছে দক্ষিণ কোরিয়া।

যুক্তরাষ্ট্র সামরিক বাহিনীর প্যাসিফিক কমান্ডের দাবি, ব্যালেস্টিক মিসাইলটি উৎক্ষেপণের কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে বিস্ফোরিত হয়।

শনিবার উত্তর কোরিয়ার বর্তমান নেতা কিম জং উনের দাদা ও দেশটির প্রতিষ্ঠাতা কিম ইল-সুংয়ের ১০৫তম জন্মদিনে বিশেষ সামরিক প্রদর্শনী ও কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠিত হয়।

সেখানে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি কড়া হুশিয়ারি দিয়ে বলা হয়, তারা পরমাণু হামলার জন্য প্রস্তুত রয়েছে। এর ঠিক একদিন পরই উত্তর কোরিয়া ক্ষেপণাস্ত্রের এই পরীক্ষা চালালো।

উত্তর কোরিয়া ডোনাল্ড ট্রাম্প ক্ষমতা গ্রহণের পর থেকে ইতিমধ্যে পাঁচটি পরমাণু ও বেশ কয়েকটি ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়েছে।

এছাড়া রোববারের ঘটনাটি এমন সময় ঘটল, যখন কোরীয় উপত্যকায় তীব্র উত্তেজনা বিরাজ করছে। আর মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স উত্তর কোরিয়ার পরমাণু কর্মসূচি মোকাবেলায় করণীয় ঠিক করতে আলোচনা করতে দক্ষিণ কোরিয়া যাচ্ছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প শক্ত অবস্থান নিয়ে বলেছেন, উত্তর কোরিয়ার পরমাণু হুমকি মোকাবেলায় তার দেশ একাই ব্যবস্থা নিতে সক্ষম। তার এ ঘোষণার পরপরই কোরীয় উপসাগরে রণতরী মোতায়েন করে যুক্তরাষ্ট্র।

চীন কোরীয় উপত্যকায় যে কোনো সময় যুদ্ধ বেধে যাওয়ার আশংকা প্রকাশ করে যুক্তরাষ্ট্র ও উত্তর কোরিয়াকে শান্ত থাকার আহ্বান জানিয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here