ইসরাইলি সেনাদের অর্ধেকেরও বেশি গাঁজাখোর

0
29

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: ইসরাইলের সেনাবাহিনীর অর্ধেকেরও বেশি সদস্য গাঁজাখোর বলে ইহুদিবাদী দেশটির মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (ইসরাইলি অ্যান্টি ড্রাগ অথরিটি-আইএডিএ) জানিয়েছে।

আইএডিএর এক প্রতিবেদনে জানানো হয়, সম্প্রতিক বছরগুলোতে ইসরাইলি সেনাদের গাঁজা সেবনের মাত্রা অতীতের সব রেকর্ড ছাড়িয়ে গেছে।

ফিলিস্তিনিদের বিক্ষোভ দমিয়ে রাখতে ২০১৭ সাল থেকে ইসরাইলি সেনাবাহিনীতে (আইডিএফ) গাঁজা সেবনের ব্যাপারে সিথিলতা আরোপ করা হয়। ছুটির দিনে পাঁচবার গাঁজা সেবনের অনুমতি দেয়া হয় সেনাসদস্যদের।

গাঁজা সেবন করে ইসরাইলি সেনারা উন্মাদ হয়ে নিরস্ত্র ফিলিস্তিনিদের ওপর সশস্ত্র হামলা চালায়। খবর ডেইলি সাবাহর।

তুরস্কের দৈনিক সাবাহর এক প্রতিবেদনে ইসরাইলি হিব্রু ভাষায় প্রকাশিত দৈনিক ইয়েদিয়থ আহরনথের বরাত দিয়ে হয়, আইএডিএর সাম্প্রতিক এক প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে- গত বছর ইসরাইলের ৫৪ দশমিক ৩ শতাংশ সেনাসদস্য মাদক সেবন করেন।

আগে সেনাসদস্যদের এ জন্য কোর্টমার্শালের মুখোমুখি হতে হতো। কিন্তু সাম্প্রতিক বছরগুলোতে ফিলিস্তিনিদের আন্দোলন জোরদার হওয়ায় ইসরাইল তাদের সেনাসদস্যদের মনোবল চাঙ্গা রাখতে গাঁজা সেবনের ব্যাপারে কঠোর নীতি শিথিল করে।

অধিকৃত ফিলিস্তিনি ভুখণ্ডে কর্মরত নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ইসরাইলি সেনা দাবি করেন, তিনি শুধু সেবনই করেন না, গাঁজা বিক্রিও করেন। এর মাধ্যমে প্রতি মাসে তার দেড় হাজার শেকেল (ইসরাইলি মুদ্রা) বাড়তি আয় হয়।

তিনি আরও জানান, ফিলিস্তিনিদের অধিকৃত এলাকায় কর্মরত সেনারা মানসিক অবসাদ ভুলতে মারিজুয়ানা ও গাঁজা সেবন করছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here