আবাহনীকে জেতাতে পারলেন না তাসকিন

0
54

স্পোর্টস ডেস্ক: নিয়মিত বোলার। বোলিং করাই তার কাজ। কিন্তু বোলিংয়ের পাশাপাশি টুকটাক ব্যাটিং করারও অভ্যাসও আছে দেশের গতিরময় পেসার তাসকিন আহমেদের। আবাহনীর দুর্দিনে ব্যাট হাতে লড়াই করেছেন।

দলকে তীরে নিয়েও শেষ পর্যন্ত জয়ের বন্দরে পৌঁছাতে পারেননি তাসকিন। ২৮ বলে ২ ছক্কা এবং ৩ চারের সাহায্যে ৩১ রান করে তাসকিন আউট হলে থেমে যায় আবাহনীর ইনিংস। ২৬ রানে জয় তুলে নেয় শেখ জামাল।

মঙ্গলবার ফতুল্লাহ খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে আগে ব্যাট করে উন্মুখ চাঁদের সেঞ্চুরিতে (১০১) ২৫৬ রান সংগ্রহ করে শেখ জামাল।

টার্গেট তাড়া করতে ওপেনিংয়ে ব্যাট হাতে নেমে পড়েন মাশরাফি বিন মুর্তজা। বোলিংয়ে ৩ উইকেট নিয়ে লিগের শীর্ষে থাকা দেশসেরা এই পেসার ব্যাট হাতে সুবিধে করতে পারেননি। ফিরেছেন মাত্র ৭ রানে। তার বিদায়ের মধ্য দিয়ে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়ে ম্যাচ থেকে ছিটকে যায় আবাহনী।

শেষ দিকে লড়াই করেছেন মেহেদী হাসান মিরাজ, সানজামুল, তাসকিনরা।এক পর্যায়ে ৯১ রানে ৯ উইকেট হারিয়ে চরম বিপর্যয়ে পড়ে যায় গত আসরের চ্যাম্পিয়নরা। দলের এমন কঠিন মুহূর্তে স্পিনার সাকলাইন সজিবকে সঙ্গে নিয়ে লড়াই অব্যাহত রাখেন তাসকিন।

৪৭তম ওভারে আবু জায়েদ রাহীকে দুই বাউন্ডারি হাঁকিয়ে ১১ রান আদায় করে আবাহনীকে জয়ের স্বপ্ন দেখাতে শুরু করেন তাসকিন। জয়ের জন্য শেষ ১৮ বলে আবাহনীর প্রয়োজন ২৮ রান। টার্গেট কঠিন হলেও তাসকিনের ভরসা খুঁজছিল আবাহনী।

তরুণ পেস বোলার রবিউল হকের গতির বলে তানভির হায়দারের হাতে ক্যাচ তুলে দেন তাসকিন। ২৮ বলে ৩২ রানে থেমে যান তিনি। আবাহনী থেমে যায় ২৩০ রানে। ২৬ রানে জয় তুলে নেয়ার মধ্য দিয়ে লিগ টেবিলের সেরা তিনে উঠে এসেছে শেখ জামাল।

উন্মুখ চাঁদের ব্যাটে রীতিমতো উড়ছে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব। পঞ্চম দল হিসেবে সুপার সিক্স নিশ্চিত করা দলটি সেরা ছয়ের লড়াইয়ে এসে দুর্দান্ত খেলছে। সুপার লিগের দুই রাউন্ডে দুই সেঞ্চুরি তুলে নিয়ে শেখ জামালকে জয় উপহার দিয়েছেন ভারতীয় ক্রিকেটার উন্মুখ চাঁদ।

সুপার লিগের প্রথম খেলায় উন্মুখ চাঁদের ১২৭ রানের ইনিংসে ভর করে টেবিলের দ্বিতীয় দল লিজেন্ড অব রুপগঞ্জকে ৭ উইকেটে হারিয়ে সেরা চারে উঠে আসে ধানমন্ডির ক্লাবটি।

মঙ্গলবার এই বিদেশির ব্যাটে ভর করে (১০১ রান) লিগ টেবিলের শীর্ষে থাকা আবাহনীকে হারিয়ে দেয় শেখ জামাল।

আবাহনীর বিপক্ষে পাওয়া এই জয়ে ১৩ ম্যাচে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে তিনে জামাল। সমান খেলায় ১৮ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষস্থান অক্ষুন্ন রেখেছে আবাহনী। ১৬ পয়েন্ট নিয়ে রান রেটে এগিয়ে থাকায় দ্বিতীয় অবস্থানে লিজেন্ড অব রুপগঞ্জ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

শেখ জামাল: ২৫৬/৮ রান (উন্মুখ চাঁদ ১০১, সৈকত ৫৬, তানভির ৩১; মাশরাফি ৩/৪৬)।

আবাহনী: ২৩০/১০ (মিরাজ ৩৫, এনামুল ৩৪, তাসকিন ৩১; রবিউল ৩/৩৫, আবু জায়েদ ৩/৫১)।

ফল: শেখ জামাল ২৬ রানে জয়ী।

ম্যাচ সেরা: উন্মুখ চাঁদ (শেখ জামাল)।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here