আন্তর্জাতিক মিডিয়াতেও শিক্ষার্থীদের আন্দোলন

0
16

ঢাকা: আন্তর্জাতিক মিডিয়ার শিরোনামে ওঠে এসেছে বাসচাপায় দুই কলেজ শিক্ষার্থীর মৃত্যুর ঘটনায় বাসচালকের শাস্তি ও নিরাপদ পরিবহন ব্যবস্থার দাবিতে ঢাকায় স্কুল-কলেজ শিক্ষার্থীদের আন্দোলন।

গত ৪ দিন ধরে চলা শিক্ষার্থীদের এ আন্দোলন নিয়ে ভারতের ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস শিরোনাম করেছে, বিমানবন্দর এলাকায় বাসচাপায় শহীদ রমিজউদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দুই শিক্ষার্থী নিহতের প্রতিবাদে ঢাকার সড়ক দখলে নিয়েছে স্কুল শিক্ষার্থীরা।

তাদের প্রতিবেদনে বলা হয়, স্কুল শিক্ষার্থীদের আন্দোলন থেকে সরে আসতে অনুরোধ জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।

১৩ থেকে ১৫ বছরের শিক্ষার্থীদের এ আন্দোলনে সরকারের একজন মন্ত্রীর পদত্যাগ চাওয়া হয় বলে তারা জানায়। প্রতিবেদনে বার্তা সংস্থা এপির প্রকাশিত ছবি যুক্ত করে তারা।

চীনের সিনহুয়ারর এশিয়া প্যাসিফিক এডিশনে শিরোনাম করা হয়, সড়ক দুর্ঘটনার প্রতিবাদে চতুর্থ দিনেও রাস্তায় বাংলাদেশের শিক্ষার্থীরা। এ বিক্ষোভে প্রায় ১০ হাজার শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে বলে তারা জানায়।

সেখানে সহপাঠী হত্যার বিচার চেয়ে ‘উই ওয়ান্ট জাস্টিস’ শ্লোগানে চার দিন ধরে এ বিক্ষোভ চালায় তারা। এ প্রতিবাদে তিনশ’রও বেশি গাড়ি ভাঙচুর করা হয় বলে জানিয়েছে তারা।

একইভাবে তুরস্কের আনাদোলু সংবাদ সংস্থা শিরোনাম করে, সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যুর প্রতিবাদে শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদ। তাদের প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, দুই কলেজ শিক্ষার্থীর নিহতের ঘটনায় বাসচালকদের গ্রেফতারের দাবি জানিয়ে এ আন্দোলনে নামে শিক্ষার্থীরা।

এ সময় তারা নিরাপদ পরিবহন ব্যবস্থার দাবিতে সড়কের গাড়ি নিয়ন্ত্রণ করে বলেও জানায় তারা। রুট পারমিট ছাড়া গাড়ি ভাঙচুর চালানোয় পুলিশের সাথে শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষ হয়। এতে চারজন শিক্ষার্থী আহত হয় বলেও প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়।

প্রসঙ্গত, রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কে কুর্মিটোলা হাসপাতালের পাশে ফুটপাতে বাসচাপায় রোববার শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দুই শিক্ষার্থী নিহত হয়। আহত হয় বেশ কয়েকজন। তাৎক্ষণিক প্রতিবাদে রাজপথে নেমে আসে শিক্ষার্থীরা। তারা গাড়ি ভাঙচুর এবং অগ্নিসংযোগ করে।

এরপর ঘাতক জাবালে নূর বাসের চালকের ফাঁসি এবং নৌ-পরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খানের ক্ষমাপ্রার্থনাসহ নয় দফা দাবিতে টানা সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে আসছে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকার শিক্ষার্থীরা। এতে রাজধানী কার্যত অচল হয়ে পড়ে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here