আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষ্যে আয়ারল্যান্ড আওয়ামীলীগের আলোচনা সভা

0
205

02222017_02_IRELAND_AL_EKUSHআয়ারল্যান্ড : ২১শে ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে আয়ারল্যান্ড আওয়ামীলীগ, আয়ারল্যান্ড আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ এবং আয়ারল্যান্ড ছাত্রলীগের আয়োজনে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গবার রাত ১০ টায় কর্কের আলিবাবা কাবাব এন্ড রেস্টুরেন্ট এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের অনুষ্ঠিত সভার পরিচালনা করেন মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্য এবং আয়ারল্যান্ড আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রতিষ্ঠাতা সংগ্রামী সভাপতি তৌহিদ হাসান।

অনুষ্ঠানের শুরুতে উপস্থিত নেতৃবৃন্দ ১ মিনিট দাঁড়িয়ে নীরবতা পালন করে ভাষা শহীদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা পালন করে।উক্ত অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন আয়ারল্যান্ড আওয়ামীলীগের সহসভাপতি জনাব ফয়জুল্লাহ সিকদার। সম্মানিত প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তৃতা রাখেন আয়ারল্যান্ড আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠাতা সাংগঠনিক সম্পাদক রফিক খান।বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কর্ক আওয়ামীলীগ নেতা জনাব জিল্লুর রহমান, আয়ারল্যান্ড আওয়ামী লীগের যুগ্ন -সাধারণ সম্পাদক ইনজামুল হক জুয়েল, আজমান বাচ্চু, দিপন খান, মিজানুর রহমান।আয়ারল্যান্ড ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন আয়ারল্যান্ড ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাতা সংগ্রামী সাধারন সম্পাদক মোঃ নোমান চৌধুরী, ছাত্রলীগ নেতা হাসানুজ্জামান হাসিব, সালাহ উদ্দিন ভূঁইয়া, হেমায়েত হোসেন এবং সজিব নাজমুল।

প্রধান অতিথির বক্তৃতায় জনাব রফিক খান তার সাম্প্রতিক জার্মানির মিউনিখে আন্তর্জাতিক নিরাপত্তা সম্মেলনে সফরের কথা তুলে ধরেন। তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আয়ারল্যান্ড আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে একটি স্থায়ী দূতাবাসের জন্য অনুরোধ করেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা ভবিষ্যতে আয়ারল্যান্ড আওয়ামীলীগ তথা সকল প্রবাসীর যেকোনো দরকারে পাশে থাকবেন বলে আশ্বাস দেন।

উক্ত সভায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আয়ারল্যান্ড স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহসভাপতি মিজানুর রহমান, মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা নাদিরা খানম পাপড়ি, যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক মোহাম্মদ সালাহ উদ্দিন। আওয়ামীলীগ নেতা সানাহ উল্লাহ্‌, টিপন বড়ুয়া, রিয়াদ চৌধুরী, মাসুদ খান, শাকিল আহমেদ, মহিউদ্দিন মইন, এমারত হোসেন সহ আরও অনেকে । বক্তারা ১৯৫২ সালে ভাষা শহীদের আত্মত্যাগয়ের কথা গভীর শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করে।১৯৫২ সালের একুশে ফেব্রুয়ারি যে চেতনায় উদ্দীপিত হয়ে বাঙালিরা রক্ত দিয়ে মাতৃভাষাকে মর্যাদার আসনে প্রতিষ্ঠিত করেছিল, আজ তা দেশের গণ্ডি পেরিয়ে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছ থেকে স্বীকৃতি লাভ করেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here