আগামীকাল ঈদ

0
368

images (1)ঢাকা: আগামীকাল বৃহস্পতিবার পবিত্র ঈদুল ফিতর। মুসলিম উম্মার সবচেয়ে বড় আনন্দের দিন এটি। গতকাল ২৯ রমজান (মঙ্গলবার) সাওয়াল মাসের চাঁদ না দেখা যাওয়ার কারণে আগামীকাল বৃহস্পতিবার ঈদ উদযাপন করবে বালাদেশের ও এর আশপাশের মুসলমানরা।

পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে রাজধানীসহ সারা দেশে সরকারি-বেসরকারি উদ্যোগে ঈদ জামাতে নামাজ আদায়ের প্রস্তুতিও ইতোমধ্যেই সম্পন্ন হয়েছে। বায়তুল মোকারম ও জাতীয় ঈদগাঁ তে জায়নামাজ ছাড়া অন্যকিছু নিয়ে ঢুকতে দেওয়া হবে না বলেও ঘোষণা এসেছে।

আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে রাজধানীতে ঈদের প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হবে বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৮টায় জাতীয় ঈদগাহে। রাজধানীতে ঈদের এ প্রধান জামাতে ইমামতি করবেন জাতীয় মসজিদের বায়তুল মোকাররমে সিনিয়র পেশ ইমাম হাফেজ মাওলানা মুহাম্মদ মিজানুর রহমান। বিকল্প ইমাম হিসেবে উপস্থিত থাকবেন শায়খুল হাদীস মাওলানা সৈয়দ ওয়াহীদুয্যামান। রাষ্ট্রপতি, বিচারপতিগণ, মন্ত্রিপরিষদের সদস্যবর্গ, মুসলিম বিশ্বের কূটনীতিকবৃন্দ জাতীয় ঈদগাহে ঈদের নামাজ আদায় করবেন। ঈদগাহে মহিলাদের জন্যও আলাদা নামাজের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে এবারও ৫টি ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে। প্রথম জামাত হবে অনুষ্ঠিত হবে সকাল ৭টায়। এক ঘণ্টা পরপর অন্য ৫টি জামাত হবে যথাক্রম ৭টা, ৮টা, ৯টা, ১০টা ও পৌনে ১১টায়। বায়তুল মোকাররমের প্রথম জামাতে ইমামতি করবেন এ মসজিদের পেশ ইমাম মুফতি মুহিবুল্লাহিল বাকী নদভী, দ্বিতীয়টিতে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উপপরিচালক ড. মাওলানা মুশতাক আহমাদ, তৃতীয়টিতে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মুহাদ্দিস মাওলানা ওয়ালিয়ুর রহমান খান, চতুর্থটিতে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উপপরিচালক মাওলানা মুহাম্মদ আবদুর রব মিয়া আল বাগদাদী এবং পঞ্চম ও সর্বশেষ জামাতে ইমামতি করবেন ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মুফতি মাওলানা মোহাম্মদ আবদুল্লাহ।

বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজায় ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ঈদ জামাতের আয়োজন করা হয়েছে। এখানে মন্ত্রী পরিষদের সদস্যবর্গ, জাতীয় সংসদের হুইপবৃন্দ, সংসদ সদস্য ও সংসদ সচিবালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ এলাকার মুসল্লিগণ জামাতে অংশ নেবেন। ঢাকা উত্তর-দক্ষিণ সিটি করপোরেশনও জাতীয় ঈদগাহের প্রধান জামাত অনুষ্ঠানের সকল প্রস্তুতি ইতোমধ্যে সম্পন্ন করেছে। ঢাকা দক্ষিণ ও ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের তত্ত্বাবধানে প্রতিটি ওয়ার্ডের মসজিদ, মাঠ ও ঈদগাহে ৪/৫টি করে মোট ৪০৮টি ঈদ জামাতের আয়োজন করা হয়েছে। ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের উপ-সমাজকল্যাণ অফিসার মো. লুৎফর রহমান চৌধুরী জানান, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ৫৭টি ওয়ার্ডের প্রত্যেকটিতে ৪টি করে ২২৮টি স্থানে ঈদ জামাতের আয়োজন করা হয়েছে।

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের দায়িত্বপ্রাপ্ত সমাজকল্যাণ অফিসার আমিনুল ইসলাম জানান, উত্তর সিটি করপোরেশনের ৩৬টি ওয়ার্ডের প্রত্যেকটিতে ৫টি করে মোট ১৮০টি ঈদ জামাতের আয়োজন করা হয়েছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় মসজিদ মসজিদুল জামিআয় ঈদের দুটি জামাত অনুষ্ঠিত হবে। ঈদের প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল ৮টায় এবং দ্বিতীয় জামাত হবে সকাল ৯টায়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সলিমুল্লাহ মুসলিম হল মেইন গেইট সংলগ্ন মাঠে এবং শহীদুল্লাহ হল লেনে সকাল ৮টায় পৃথক দুটি ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে।

প্রতি বছরের মতো এবারও কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়ায় দেশের সর্ববৃহৎ ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে। ইতোমধ্যে সেখানেও ঈদ জামাতের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। দেশের প্রায় প্রতিটি ঘরে এখন ঈদের প্রস্তুতি সম্পন্ন। সাধ্যমতো সব পরিবারই নতুন জামা-কাপড় কিনেছে, কিনছে। খাবার তৈরির জন্য কেনা হয়েছে সেমাই, চিনি, দুধসহ সুস্বাদু খাদ্য সামগ্রী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here