অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দল আসছে আজ

0
66

স্পোর্টস ডেস্ক: ২০১৫ সালের সফর গড়াল ২০১৭-তে। সেবার অস্ট্রেলিয়া আসেনি নিরাপত্তা ইস্যুতে। এবারও সফর ভেস্তে যেতে বসেছিল। তবে অন্য কারণে। বোর্ডের সঙ্গে অস্ট্রেলিয়ার খেলোয়াড়দের আর্থিক বিষয় নিয়ে টানাপড়েনের জেরে। ভাগ্যিস, শেষ পর্যন্ত মেঘ সরে গিয়ে সূর্য উঁকি দিয়েছে। সব উদ্বেগ, উৎকণ্ঠার অবসান ঘটিয়ে সেই মাহেন্দ্রক্ষণ উপস্থিত। শুক্রবার রাতেই বাংলাদেশ সফরে আসছে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দল।

সফরসূচি অনুযায়ী রাত ১০টা ৪০ মিনিটে স্টিভ স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নারদের বহনকারী বিমান হযরত শাহজালাল (রহ.) বিমানবন্দরে অবতরণ করবে।

সফরে অস্ট্রেলিয়া শুধু দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলবে। ঢাকায় প্রথম টেস্ট ২৭ আগস্ট শুরু হবে মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে। চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে ৪ সেপ্টেম্বর শুরু হবে দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট।

২২ ও ২৩ আগস্ট দু’দিনের একটি প্রস্তুতি ম্যাচ দিয়ে সফর শুরু করবে অস্ট্রেলিয়া। এই ম্যাচের নির্ধারিত ভেন্যু ফতুল্লা। তবে টানা বৃষ্টির দরুন ফতুল্লার মাঠে পানি জমে যাওয়ায় ভেন্যু বদল হতে পারে।

আগেই অস্ট্রেলিয়ার দুই সদস্যের অগ্রবর্তী দল ঢাকায় এসেছে। তারা সার্বিক নিরাপত্তা পরিস্থিতি এবং সবরকম সুযোগ-সুবিধা ও ভেন্যু দেখে সন্তুষ্ট।

অস্ট্রেলিয়ার এই সফর ২০১৫ সালের। সে সময় নিরাপত্তা ইস্যুতে সফর স্থগিত করে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ)। এ দু’বছরে বাংলাদেশ সফরে আসা নিয়ে অনেক নাটক তৈরি হয়েছে। শেষ পর্যন্ত ভারত সফরের আগে অস্ট্রেলিয়া বাংলাদেশে আসতে রাজি হয়। এ সফরটাও আটকে যেতে বসেছিল।

এবার সমস্যাটা ছিল ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া ও তাদের খেলোয়াড়দের মধ্যে ঝামেলা হওয়ায়। বোর্ডের সঙ্গে খেলোয়াড়দের চুক্তি নিয়ে দীর্ঘদিনের ঝামেলা গত মাসে প্রকট আকার ধারণ করে। দুই পক্ষই কিছুতে একমত হতে পারছিল না।

শেষ পর্যন্ত কয়েক দফা বোর্ড ও খেলোয়াড়দের সংগঠনের মধ্যে আলোচনার পর সমাধানে আসে দুই পক্ষ। গত ৩ আগস্ট সমঝোতা হয়। এর পরই বাংলাদেশ সফরে আসা নিশ্চিত হয় স্মিথ-ওয়ার্নারদের।

এদিকে বাংলাদেশ সফরের প্রস্তুতি হিসেবে অস্ট্রেলিয়া দল ডারউইনে অনুশীলন ক্যাম্প করে। সেখানকার কন্ডিশন ও উইকেট বাংলাদেশের মতো হওয়ায় স্মিথরা ডারউইনকে প্রস্তুতির জন্য বেছে নেন। সেখানে নিজেদের মধ্যে একটি প্রস্তুতি ম্যাচও খেলেছে অস্ট্রেলিয়া দল।

বাংলাদেশের স্পিন আক্রমণের কথা চিন্তা করে প্রস্তুতি ম্যাচে ছিলেন ছয়জন স্পিনার। এর মধ্যে মেহেদী হাসান মিরাজের কথা বেশি করে ভাবাচ্ছে অস্ট্রেলিয়া দলকে। এ জন্যই তারা অফ-স্পিনার বোলারদের নিয়েই বেশি অনুশীলন করেছে।

এদিকে বাংলাদেশও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজ সামনে রেখে কয়েক সপ্তাহ ধরে অনুশীলন চালিয়ে যাচ্ছে। কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে প্রাথমিক দল নিয়ে অনুশীলন প্রস্তুতি সারছেন। বৃহস্পতিবার মিরপুর স্টেডিয়ামে নিজেদের মধ্যে ভাগ হয়ে ম্যাচের বিভিন্ন পরিস্থিতিতে কেমন ব্যাটিং বা বোলিং করতে হবে সে হিসাবে অনুশীলন করেছেন মুশফিক-তামিমরা। নির্বাচকরা এরই মধ্যে চূড়ান্ত দল বিসিবি সভাপতির কাছে জমা দিয়েছেন।

শনিবার বাংলাদেশ দল ঘোষণা করা হতে পারে। দলে থাকতে পারে দু’একটি চমক।

LEAVE A REPLY