অর্থনীতিকে ধ্বংস করছে সরকার: ফখরুল

0
102

fakhrul_295813ঢাকা: বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, সরকার পরিকল্পিতভাবে দেশের অর্থনীতিকে ধ্বংস করার লক্ষ্য নিয়ে কাজ করছে। বিগত ১/১১ সরকারের আমল থেকে এই কাজ শুরু হয়েছে। বর্তমানে দেশের অর্থনীতি হচ্ছে লুটেরা অর্থনীতি। এই অর্থনীতি রসাতলে যাচ্ছে। অর্থনীতিকে নিয়ে ম্যাজিক দেখাচ্ছে সরকার।

শুক্রবার বিকেলে রাজধানীর হোটেল পূর্বানীর বলরুমে এমবিএ অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ম্যাব) উদ্যোগে ‘প্রাক-বাজেট ২০১৭-১৮’-এর ওপর এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে সাবেক জ্বালানি উপদেষ্টা এমবিএ মাহমুদুর রহমান বাংলাদেশের অর্থনীতির ওপর মূল প্রবন্ধ পাঠ করেন। প্রবন্ধে জাতীয় প্রবৃদ্ধি, সঞ্চয়, রেমিট্যান্স, রফতানি আয়, শিল্পায়ন, কৃষি খাত, বেসরকারি বিনিয়োগসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিএনপি ও আওয়ামী লীগ সরকারের আমলের তুলনামূলক বিশ্লেষণ করে দেশের সামগ্রিক চিত্র তুলে ধরা হয়। আগামী ১ জুন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত সংসদে ২০১৭-১৮ অর্থবছরের জাতীয় বাজেট উপস্থাপন করবেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘জুয়েল আইচ ম্যাজিক দেখান। একটা ফুল নিয়ে এসে ১০০টা ফুল দেখান। বর্তমান সরকার সেই অর্থনীতিকে একটা ফুল দিয়ে ১০০টা ফুল দেখাতে চায়।’

তিনি বলেন, ‘১/১১-এর আগে এ দেশে যেসব নতুন উদ্যোক্তা সৃষ্টি হচ্ছিল, সেসব ব্যবসায়ীরা তাদের নিজেদের পুঁজি বাংলাদেশে বিনিয়োগ চাচ্ছিলেন, তাদের ধরে নিয়ে এমন পিটুনি দেওয়া হলো, জীবনেও তারা আর বিনিয়োগের কথা ভাববেন না। এটা বাস্তবতা। ব্যবসায়ীদের জিজ্ঞাসা করলে পাওয়া যাবে তারা নতুন করে বিনিয়োগের কথা চিন্তাও করেন না। এই ব্যবসায়ীদের, উদ্যোক্তাদের আশা ছিল, প্রত্যাশা ছিল— তারা এ দেশে পুঁজি বিনিয়োগ করে সত্যিকার অর্থে একটি মুক্ত অর্থনীতির দেশ হিসেবে গড়ে তুলবেন, সমৃদ্ধ দেশ গড়ে তুলবেন, সেটা কখনও সম্ভব হবে না। কারণ, আমাদের প্রবৃদ্ধি ক্রমান্বয়ে কমছে, রেমিট্যান্স গ্রোথে ধস নামছে।’

এ অবস্থায় কি দেশের অর্থনীতিকে আবার ট্র্যাকে ফিরিয়ে আনা যাবে— সেই প্রশ্ন রেখে তিনি বলেন, ‘বর্তমান সরকারের বাজেট প্রণয়ন করার নৈতিক কোনো ভিত্তি নেই। জনগণের ট্যাক্স তারা নেবে, সেটা কোন অধিকারে নিচ্ছে তার কোনো ভিত্তি বা জবাব তারা দিতে পারবে না। আমাদের ট্যাক্সের টাকা থেকে হাজার হাজার কোটি টাকা লুট করে নিয়ে গেছে।’

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ম্যাবের সভাপতি সৈয়দ আলমগীর হোসেন ও পরিচালনায় ছিলেন ম্যাবের মহাসচিব শাকিল ওয়াহেদ। বক্তব্য দেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, অর্থনীতিবিদ অধ্যাপক মাহবুবউল্লাহ, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক খন্দকার মুস্তাহিদুর রহমান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক আবু আহমেদ, কবি ফরহাদ মজহার, বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here