‘অনিচ্ছাকৃত’ ভুলের জন্য যা বললেন নৌমন্ত্রী

0
25

ঢাকা: নৌপরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান ২৯ জুলাই রাজধানীতে সড়ক দুর্ঘটনায় দুই জন শিক্ষার্থী নিহত হওয়ার ঘটনায় পুনরায় শোক, দুঃখ ও সমবেদনা প্রকাশ করেছেন। এসময় তিনি আহতদের দ্রুত সুস্থতা কামনা করেছেন।

মঙ্গলবার (৩১ জুলাই) ঢাকায় বিসিআইসি অডিটরিয়ামে এক প্রতিনিধি সভায় ২৯ জুলাই নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের এক অনুষ্ঠানে সড়ক দুর্ঘটনা সংক্রান্ত সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তাঁর অনাকাঙ্খিত আচরণের জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছেন বলে জানিয়েছেন নৌপরিবহণ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য ও জনসংযোগ কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম খান।

জাহাঙ্গীর আলম জানান, নৌমন্ত্রী সেদিনের আচরণের সমালোচনাকে গ্রহণ করেছেন। সেদিনের অনিচ্ছাকৃত ভুলকে ক্ষমা সুন্দরভাবে দেখার জন্য সকলের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন শাজাহান খান।

নৌপরিবহন মন্ত্রী সেদিনের দুর্ঘটনার জন্য দোষিদের শাস্তি পাওয়ার বিষয়টি পুনরায় ব্যক্ত করেন। তিনি বলেন, দোষিদের বিরুদ্ধে আইনানুগ শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হলে কোন সংগঠনের পক্ষ থেকে প্রতিবাদ করা হবে না।

গত ২৯ জুলাই রাজধানীর খিলক্ষেত মোড়ে জাবালে নূর নামে একটি বাসের চাপায় দুই শিক্ষার্থী নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন আরও ১২ জন শিক্ষার্থী। বাসচাপায় নিহত শিক্ষার্থীরা শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজে পড়তেন। তাদের একজন দিয়া খানম ওরফে মিম ও অপরজন আব্দুল করিম। কলেজের মানবিক শাখার দ্বাদশ শ্রেণিতে পড়তেন আবদুল করিম এবং একাদশ শ্রেণিতে দিয়া।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দুপুরে ফ্লাইওভার থেকে নামার পর উত্তরাগামী আরেকটি বাসের সাথে প্রতিযোগিতায় পাল্লা দেয় জাবালে নূর বাসটি। এ সময় রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে ছিল কয়েকজন শিক্ষার্থীরা। বেপরোয়া গতির কারণে সড়কের পাশে দাঁড়িয়ে থাকা শিক্ষার্থীদের ওপর তুলে দেন চালক।

পরে দুপুরে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে নৌপরিবহনমন্ত্রী বলেন, দুর্ঘটনায় জড়িত ব্যক্তিদের শাস্তি হবে। আমি শুধু এটুকু বলতে চাই, যে যতটুকু অপরাধ করবে, সে সেভাবে শাস্তি পাবে। যে শাস্তি হবে, সেই শাস্তি নিয়ে বিরোধিতার কোনো সুযোগ এখানে নেই।

সচিবালয়ে অন্য একটি বিষয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছিলেন শাজাহান খান। এ সময় এক সাংবাদিক বলেন, ‘অভিযোগ আছে যে আপনার মদদে-প্রশ্রয়ে বাসের চালকরা বেপোরোয়া।’

মন্ত্রী শাজাহান খান তখন হেসে বলেন, এটার সঙ্গে কি এটা রিলেটেড? আমি শুধু এটুকু বলতে চাই, যে যতটুকু অপরাধ করবে সে সেভাবেই শাস্তি পাবে। ভারতের মহারাষ্ট্রে এক দুর্ঘটনায় ৩৩ জন মারা গেছে, তা নিয়ে কোনও হইচই নেই। অথচ বাংলাদেশে সামান্য কোনও ঘটনা ঘটলেই হইচই শুরু হয়ে যায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!